মার্কিন ডলারের বিপরীতে ভারতীয় রুপির দাম প্রায় রেকর্ড পরিমাণ কমে গিয়েছে। ফলে ভারতে আরও মূল্যস্ফীতির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে আরও আগ্রাসী ও কড়া নীতিমালা গ্রহণেরও সম্ভাবনা রয়েছে।

উৎপাদকেরা উৎপাদন কমিয়ে দেওয়ার কথা বলায় অপরিশোধিত তেলের দাম বেড়ে গেছে। ফলে অর্থবছরের শেষ ত্রৈমাসিকের শুরুতেই চাহিদার তিন-চতুর্থাংশ তেল আমদানিকারক দেশ ভারতের নিজস্ব মুদ্রার বাজারও পড়ে গেছে।  

ব্লুমবার্গ জানায়, আজ সোমবার ভারতে এক মার্কিন ডলারের বিপরীতে ৮১ দশমিক ৮৯ রুপি পর্যন্ত গুনতে হয়েছে। যা রেকর্ড দাম ৮১ দশমিক ৯৫ রুপির প্রায় কাছাকাছি। অথচ গত শুক্রবারও এক ডলারের বিপরীতে ৮১ দশমিক ৩৫ রুপিতে লেনদেন হয়। যদিও আজ সোমবার চীন, দক্ষিণ কোরিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার কিছু অঙ্গরাজ্যে ছুটির দিন হওয়ায় ভারতে তুলনামূলক বৈদেশিক বাণিজ্য কম হয়েছে।

তেল রপ্তানিকারক দেশ ও সংস্থাগুলোর সংস্থা ওপেকপ্লাস জানিয়েছে, তারা উৎপাদন কমিয়ে আনার কথা ভাবছে। এর ফলে হয়তো তেলের দাম ৪ শতাংশ বেড়ে যেতে পারে বলেও জানায় সংস্থাটি। সূত্র: এনডিটিভি