রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সম্ভবত সবচেয়ে ভয়াবহ দশকের মুখোমুখি হচ্ছে বিশ্ব। গতকাল বৃহস্পতিবার এক বক্তৃতায় তিনি ইউক্রেন আগ্রাসনের পক্ষে নিজের অবস্থান ব্যক্ত করেন। যদিও এ আগ্রাসনের ফলে পশ্চিমা জোট রাশিয়াকে একঘরে করতে উঠেপড়ে লেগেছে।

পুতিন অভিযোগ করেছেন, পরমাণু ইস্যুতে ব্ল্যাকমেইল করছে। পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে তিনি বলেন, তারা বিপজ্জনক, রক্তাক্ত, নোংরা খেলা খেলছে। বিশ্বের বেশির ভাগ সমস্যা সৃষ্টির জন্য পশ্চিমাদেরকে দোষারোপ করেছেন পুতিন; এমনকি নিজের ইউক্রেন আগ্রাসনের জন্যও তিনি পশ্চিমাদের দায়ী করার প্রয়াস নিয়েছেন।

মস্কোভিত্তিক গবেষণা ও পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ‘ভালদাই ডিসকাশন ক্লাব’র সদস্যদের উদ্দেশে বক্তব্যে বৃহস্পতিবার পুতিন বলেন, ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে এখন সামনে আছে সম্ভবত সবচেয়ে বিপজ্জনক, অপ্রত্যাশিত এবং একইসঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ একটি দশক।’

পুতিন বলেন, পশ্চিমারা আর চালকের আসনে থাকতে পারবে না, তবে তারা প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। আমাদের দৃষ্টির অগোচরে ভবিষ্যতের বিশ্ব ব্যবস্থার গোড়াপত্তন হয়ে চলেছে। যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা শক্তি রাশিয়াকে ধ্বংস করে দিতে চাইছে বলেও অভিযোগ করেন রুশ প্রেসিডেন্ট।