নেপালের রাজনীতিতে বয়োজ্যেষ্ঠদের প্রাধান্য বেশি। তাঁরাই দেশটির গতিপথ নির্ধারণ করেছেন এতদিন। তবে সদ্য সমাপ্ত এবারের জাতীয় নির্বাচনের ফলে দেখা যাচ্ছে, ভোটাররা বয়োজ্যেষ্ঠদের চেয়ে তরুণদের বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন। গত ২০ নভেম্বরের নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল এখনও ঘোষণা করা না হলেও ইতোমধ্যে কয়েকজন তরুণ বেসরকারি ফলে বিজয়ী হয়েছেন। যা স্পষ্টতই দেশটির রাজনীতির গতিপথ বদলাবে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে, নেপালের রাজনীতিতে তরুণরা ভালো করেছেন। ইতোমধ্যে কয়েকটি আসনে প্রবীণ রাজনীতিবিদরা তরুণদের কাছে হেরে গেছেন। এ রকমই এক তরুণ রাজনীতিবিদ হচ্ছেন দেশটির সদ্য গঠিত ন্যাশনাল ইন্ডিপেনডেন্সি পার্টির (এনআইপি) সদস্য বিরাজ ভক্ত শ্রেষ্ঠা। তিনি দেশটির রাজধানী কাঠমান্ডুর ৮ নম্বর আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। একই সঙ্গে ভোটে জয়লাভ করেছেন সুবক্তা শোবিতা গৌতম।

২৭ বছর বয়সী এই আইনজীবী বলেন, অতীতে পুরোনো রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি এবং সদস্যরা থাকায় তাঁরা কেউ দেশের সমসাময়িক বিষয় নিয়ে কথা বলেননি। তবে আমি সেই ধারা ভেঙে নতুন ধারা আনার পরিকল্পনা করছি। যেখানে সবাই দেশের কল্যাণে নির্ভয়ে কথা বলতে পারবেন। রাজনৈতিক বিশ্নেষক বিষুষ্ণ সাপকোটা বলেন, এবারের নির্বাচনের অন্তর্নিহিত বার্তা হচ্ছে 'পরিবর্তন'।