লাতিন আমেরিকার দেশ পেরুর বামপন্থি নেতা প্রেসিডেন্ট পেদ্রো ক্যাসটিলোকে অভিশংসনের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করেছেন দেশটির আইনপ্রণেতারা। এরপরই অভ্যুত্থান চেষ্টার অভিযোগে তাকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে পেরুর নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন ভাইস-প্রেসিডেন্ট দিনা বোলোয়ার্তে। এর মধ্য দিয়ে দেশটির ইতিহাসে প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হলেন তিনি। ২০২৬ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানিয়েছেন দিনা বোলোয়ার্তে।

সম্প্রতি পেরুর বিচারবিভাগ ঢেলে সাজানোর ঘোষণা দেন পেদ্রো ক্যাসটিলো। যারা তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগগুলো তদন্ত করছিল। তার এসব সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হন মন্ত্রীরা। একে একে মন্ত্রীদের অনেকে পদত্যাগ করেন।

গত মঙ্গলবার ক্যাসটিলো এক ঘোষণায় জানান, আইনসভা সাময়িকভাবে বিলুপ্ত করা হবে এবং তিনি ডিক্রি জারির মাধ্যমে দেশের শাসনকার্য চালাবেন। দেশে আইনের শাসন পুনপ্রতিষ্ঠা ও গণতন্ত্রের স্বার্থে এ উদ্যোগ নেওয়া হবে বলেও ঘোষণায় বলেছিলেন তিনি। এ ঘোষণার তীব্র বিরোধিতা করে বিরোধী শিবিরসহ অন্যরা। এমনকি সেসময় দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট দিনা বোলোয়ার্তে এ ঘোষণাকে রাষ্ট্রবিরোধী অভ্যুত্থান হিসেবে আখ্যায়িত করেন। অভিশংসনের মাধ্যমে ক্যাসটিলোকে অপসারণের পর দেশটির কংগ্রেস দিনা বোলোয়ার্তেকে ক্ষমতা নেওয়ার আহ্বান জানায়। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার পেরুর প্রথম নারী নেতা হিসেবে শপথ নেন তিনি। সূত্র: বিবিসি।