পুলিশি হেফাজতে মৃত্যুবরণকারী মাহসা আমিনির প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে তার বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে ইরানের পুলিশ। তবে গ্রেপ্তারের কিছু সময় পর তাকে আবার ছেড়ে দেয় তারা। খবর রয়টার্সের

গত বছর হিজাব পরিধানের বিধান লঙ্ঘন করার অভিযোগে ২২ বছর বয়সী তরুণী মাহসা আমিনিকে গ্রেপ্তার করে দেশটির নৈতিকতা পুলিশ। এরপর তাদের হেফাজতেই ১৬ সেপ্টেম্বর আমিনির মৃত্যু হয়।

নৈতিকতা পুলিশের হেফাজতে আমিনির মৃত্যু হওয়ার পর বিক্ষোভে ফেটে পড়ে পুরো ইরান। যা কয়েক মাস ধরে চলেছিল। তবে ইরান সরকার এই বিক্ষোভ কঠোরহস্তে দমন করে।

মাহসা আমিনির মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে আবার পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে এমন আশঙ্কা থেকে তাকে স্মরণ করে যে কোন অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করেছে প্রশাসন। 

মানবাধিকার সংস্থা কুর্দিস্তান হিউম্যান রাইটস নেটওয়ার্ক জানিয়েছে, আমিনির বাবা আমজাদ আমিনিকে ছেড়ে দেওয়ার আগে নিরাপত্তা বাহিনী হুঁশিয়ারি দিয়েছে, তাকে নিয়ে যেন কোনো ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন না করা হয়।

রাষ্ট্রীয়ভাবে বাধা দেওয়া সত্ত্বেও গত সপ্তাহে আমিনির পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছিলেন, তারা ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী তার মৃত্যুবার্ষিকী পালন করবেন এবং তার কবরে যাবেন।