ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩

শিখ নেতা হত্যা

ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্ব দৃঢ় করতে চাই: ট্রুডো

ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্ব দৃঢ় করতে চাই: ট্রুডো

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৬:৪১ | আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৬:৪১

কানাডার নাগরিক ও সেখানকার শিখ ধর্মাবলম্বীদের নেতা হরদীপ সিং নিজ্জারের হত্যাকাণ্ড নিয়ে সম্প্রতি ব্যাপক টানাপোড়েন চলছে কানাডা ও ভারতের মধ্যে। এ প্রসঙ্গে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো জানিয়েছেন, তার দেশ ভারতের সঙ্গে বিদ্যমান কূটনৈতিক সম্পর্ককে আরও দৃঢ় ও গভীর করতে আগ্রহী। তবে হরদীপ হত্যাকাণ্ডের তদন্তের ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দিতে প্রস্তুত নয়।

বৃহস্পতিবার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সে দেওয়া এক ভাষণে ট্রুডো ভারত-কানাডার কূটনৈতিক সম্পর্ক ইস্যুতে নিজ দেশের অবস্থান স্পষ্ট করেন।

ট্রুডো বলেন, ভারত একটি উদীয়মান অর্থনৈতিক শক্তি এবং গুরুত্বপূর্ণ ভূরাজনৈতিক প্লেয়ার। ইন্দো-প্রশান্ত অঞ্চলের সঙ্গে কানাডার কূটনৈতিক সম্পর্কবিষয়ক নীতি আমরা গত বছর পার্লামেন্টে উপস্থাপন করেছি। সেই নীতি অনুসারে দেশের স্বার্থেই ভারতের সঙ্গে আমাদের কূটনৈতিক বন্ধন আরও দৃঢ় করতে হবে এবং আমরা এ ব্যাপারে মনোযোগী। তবে কানাডার আইন ও সংবিধানকে লঙ্ঘন করে এমন কোনো কর্মকাণ্ড আমরা সমর্থন করতে পারি না। যা ঘটেছে, তার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত আমরা চাই এবং এ ক্ষেত্রে কানাডার সঙ্গে ভারতের কাজ করা প্রয়োজন। ভারতের পরই সবচেয়ে বেশিসংখ্যক শিখ বসবাস করেন কানাডায়। দেশটির মোট জনসংখ্যার ৫ শতাংশই শিখ।

এদিকে  মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের বৈঠকে ওয়াশিংটন নয়াদিল্লিতে শিখ নেতা হরদীপ সিং নিজ্জারের হত্যাকাণ্ডের তদন্ত প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে। বৃহস্পতিবার এক মার্কিন কর্মকর্তার বরাতে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে ট্রুডো বলেছিলেন, তিনি নিশ্চিত দুই দেশের বৈঠকে হরদীপের বিষয়টি উত্থাপন করবে যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, ব্লিংকেন কানাডার দাবির বিষয়টি বৈঠকে উত্থাপন করেন এবং ভারত সরকারকে কানাডার তদন্ত প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান। তবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এ বিষয়টির কোনো উল্লেখ নেই। খবর রয়টার্স ও আলজাজিরার।

আরও পড়ুন