ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্রে ১৮ মাস থাকতে পারবে হংকংয়ের বাসিন্দারা

যুক্তরাষ্ট্রে ১৮ মাস থাকতে পারবে হংকংয়ের বাসিন্দারা

হংকংয়ের বাসিন্দারা বিশ্বাস করেন চীন তাদের অধিকার এবং স্বাধীনতাকে ক্ষুণ্ন করছে। ছবি: রয়টার্স

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ আগস্ট ২০২১ | ০১:২৭

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত হংকংয়ের বাসিন্দাদের অস্থায়ী ‘নিরাপদ আশ্রয়’ বা ‘সেইফ হেভেন’ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

তিনি বলেছেন, চীন হংকংয়ের ‘স্বাধীনতা ক্ষুণ্ন করায়’ শহরটি থেকে আসা ব্যক্তিদের যুক্তরাষ্ট্র অতিরিক্ত ১৮ মাস পর্যন্ত থাকার অনুমতি পাবে। খবর বিবিসির। 

বাইডেন বলেছেন, ‘পররাষ্ট্র নীতির স্বার্থেই’ হংকংয়ের বাসিন্দাদের যুক্তরাষ্ট্রে থাকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। শহরটিতে এখনও যে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া ও প্রতিষ্ঠানগুলো টিকে আছে চীন সেগুলোকে দুর্বল করে দিচ্ছে, প্রাতিষ্ঠানিক স্বাধীনতা সীমিত করে আনছে এবং সংবাদপত্রের স্বাধীনতা খর্বে দমনপীড়ন চালাচ্ছে।

হংকংয়ে নিরাপত্তা আইনে সরকারবিরোধী রাজনীতিক ও গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনকারীসহ শতাধিক ব্যক্তিকে আটকের ঘটনার দিকেও আঙুল তুলেছেন তিনি।

ওয়াশিংটনে চীন দূতাবাসের মুখপাত্র লিউ পেঙ্গিউ বাইডেন প্রশাসনের এই পদক্ষেপে কড়া সমালোচনা করেছেন।

তবে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকারী হংকংয়ের এক গবেষক ম্যাগি শাম অবশ্য বাইডেন প্রশাসনের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন।

বাইডেন প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রে থাকা হংকংয়ের প্রায় এক লাখ বাসিন্দা উপকৃত হবে বলে মনে করছেন ওয়াশিংটনভিত্তিক হংকং ডেমোক্রেসি কাউন্সিরের স্যামুয়েল চু।

আরও পড়ুন

×