লুইস গ্লিক জীবন যখন কবিতা

প্রকাশ: ১৬ অক্টোবর ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

--

২০২০ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেলেন মার্কিন কবি লুইস গ্লিক। তার কবিতায় বহুলাংশে আধিপত্য করে আত্মজৈবনিকতা। সেখানে একধরনের মৃত্যুচেতনা, মানব অস্তিত্বের অসহায়ত্ব আর একটি আত্মগত কণ্ঠস্বরের ঘনিষ্ঠ প্রক্ষেপণ পাওয়া যায়। যা তার চোখ দেখে, কবিতায় যেন তাই তিনি তুলে ধরেন গদ্যের বুননে- কখনো হয়তো কোনো উদ্ৃব্দতি কিংবা পুরোনো কোনো বন্ধুর কথা, কোনো পৌরাণিক চেতনার উক্তি জুড়ে দেন লুইস গ্লিক।
কবিতায় তার কণ্ঠস্বর মৃদু, কখনো ভয়ার্ত, অনিশ্চিত, দ্বিধাভারাক্রান্ত। জীবন-মৃত্যুর মাঝখানে দ্বিধান্বিত স্বর তার কবিতায় ভাষা পেয়ে মূর্ত হয়। আবার বিমূর্ততাকেও তিনি বাস্তবতার বিচিত্র অবয়বে তুলে ধরেন তার কবিতায়। নোবেলজয়ী কবি লুইস গ্লিকের কবিতা ও জীবনের কথকতা নতুন এক ভুবনের সামনে আমাদের দাঁড় করায়। প্রচ্ছদে বিস্তারিত...

সূচিপত্র
শ্রদ্ধাঞ্জলি: রশীদ হায়দার
তিনি আমাদের
মাকিদ হায়দার -৪-৫
প্রচ্ছদ
লুইস গ্লিক: কবিতায় আত্মজীবন
ফয়জুল লতিফ চৌধুরী -৬-৯
লুইস গ্লিকের পঙ্‌ক্তিমালা
ভাষান্তর: মাহীন হক -১০-১১
প্রদর্শনী

এক গ্যালারি মুর্তজা বশীর
সঞ্জয় ঘোষ -১২-১৩
ধারাবাহিক: তুমুল গাঢ় সমাচার
বঙ্গবন্ধুর গণতান্ত্রিক সমাজতন্ত্র
বাহাত্তরের সংবিধান ও সমতামুখী সমাজের আকাঙ্ক্ষা
বিনায়ক সেন -১৪-১৫