অপার অপেক্ষায় থাকে দুর্নিরীক্ষ্য সমস্ত অক্ষর
আনন্দ আর রিরংসার রঙচিত্র
উঠে যাচ্ছে আকাশের দিকে,
এইসব প্রতিভাস- স্বপ্নের ভেতর সঙ্গমের ভাষা নিয়ে
ব্যক্তিগত ধ্বনিমালা দূর শতাব্দীর দিকে।

আর অচেনা রঙ নিয়ে প্রাচীন অন্ধকারে
মিশে আছি রুদ্ধ ছায়া,
কম্পিত রক্তকণিকার দীর্ণ অন্ধকারে
স্খলিত স্বপ্নের গানগুলো উড়ে উড়ে যায়
বাহিত সময়ের সাথে থাকে কানামাছি ভোর,
ভাঙ্গা আয়নার সংসারে ছেঁড়া ছেঁড়া দগ্ধ দাগ
ভেসে যায় গোপন কান্না;
বৈকল্যের ক্যানভাসে মৃতছায়ার বিজ্ঞাপন,
হৃদয় বিদীর্ণ করে স্বপ্নগুলো চলে যায়
পৃথিবীর জানালায় দেখি অনন্ত মহাশূন্যের ভস্মস্তূপ,
গোপন কাঁটার মতো ছড়িয়ে থাকে নীরব গ্লানি
নিজের লুকোনো মুখের দিকে কতকাল কথা বলিনি পরস্পর।

দৈব বিফল জেনে দুঃখ-কাঁটা জালে চাই নির্ভার কৃপাকণা
বিমুক্ত হও পাহাড়ের তালা গুহাযাপনের নৈপথ্য কাহন।

মন্তব্য করুন