দক্ষিণ এশিয়ার ড্রাগ ডিলিংয়ের নেটওয়ার্কের গল্প নিয়ে নির্মাতা সৈকত নাসির নির্মাণ করেছেন ওয়েব সিরিজ 'নেটওয়ার্ক'। রাঙ্গামাটি, বান্দরবান ও চিটাগাংয়ে পাঁচ সিজনের এই ওয়েব সিরিজ প্রথম দুই সিজন শুটিং শেষ করে সম্প্রতি ঢাকায় ফিরেছেন 'নেটওয়ার্ক' টিম। ফিরেই জানালেন, অসাধারণ একটি কাজ হয়েছে 'নেটওয়ার্ক'।

সম্প্রাতি সিরিজটির একটি  ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন নির্মাতা। সেখানে স্পিডবোট  করে অভিনেতা-অভিনেত্রীর মিশনে যাওয়ার একটি দৃশ্য দেখা যায়। ছবির সূত্র ধরেই যোগাযোগ করা হয় পরিচালকের সঙ্গে। তিনি জানান, বাংলাদেশ ভারত ও মায়ানমারের অন্ধকার দুনিয়ায় ড্রাগ ড্রিলিয়েংয়ের ক্রাইম থ্রিলার গল্প এটি। সিরিজটি হচ্ছে চিটাগাংয়ের মেয়ে আনোয়ারাকে নিয়ে। যিনি এক সময় ড্রাগ দুনিয়ার মাফিয়া উঠেন।'

নির্মাতার ভাষ্য, সিরিজটি আন্তর্জাতিক মানের একটি সিরিজ হয়েছে। প্রচুর অ্যাকশন আর বাইক, স্পিডবোট ও হেলিকপ্টারের চেজিং থাকছে। ফলে পুরো প্রজেক্টটি অসম্ভব ব্যয়বহুল। এতো বাজেট ও ক্যানভাস নিয়ে এখানে এমন সিরিজ আর হয়েছে বা হচ্ছে বলে আমার জানা নেই।’

সিরিজটিতে অনত্যম প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন নিপা আহমেদ রিয়েলি। যিনি এর আগে অনন্য মামুন পরিচালিত 'মেকআপ' সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এ সিরিজটিতে বহুরূপি এক রিয়েলিকে যাবে বলে জানালেন তিনি।

রিয়েলি বলেন, 'চোখ বন্ধ করে বলতে পারি নেটওয়ার্ক সিরিজটি একটি আন্তর্জাতিক মানের সিরিজ হবে। সৈকত নাসির ভাইয়ের নির্মাণ সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই। এতে আমার চরিত্রটি দারুণ সাহসী। তাই অনেক ঝুকি নিয়ে কাজ করতে হয়েছে। শাড়ি পরে বাইক রাইডস করতে হয়েছে, পাহাড়ে দৌড়াতে হয়েছে। শুটিংয়ে আহতও হয়েছি আমি। সবই করেছি চরিত্রটিতে ফুটিয়ে তুলতে। আশা করি, আমাদের পরিশ্রম স্বার্থক হবে।' 

ওয়েব সিরিজটির কাহিনি, সংলাপ ও চিত্রনাট্য লিখেছেন আব্দুল্লাহ জহির বাবু। এতে অভিনয় করবেন, সাঞ্জু জন, সাজ্জাদ হোসাইন, রাশেদ মামুন অপু, শাকিবা, নওশাবাসহ মোট ৪৮ জন শিল্পী এতে অভিনয় করেছেন বলে জানালেন নির্মতা। 

ওয়েব সিরিজটির প্রতি সিজনে ৮ পর্ব করে থাকবে। আগামী জানুয়ারী থেকে ওটিটি প্লাটফর্ম আইথিয়েটারে প্রচার হবে নেটওয়ার্ক।