বাংলাদেশের শিল্পকলার অন্যতম প্রধান পথিকৃৎ শিল্পী কামরুল হাসান। এদেশে প্রাতিষ্ঠানিক শিল্পকলা চর্চা শুরুর অন্যতম প্রধান ব্যক্তিত্ব তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাফিক ডিজাইনের প্রতিষ্ঠাতা বিভাগীয় প্রধান শিল্পী কামরুল হাসান নিজস্ব শিল্পকর্মে দেশজ অবাহ ও অবয়ব, রঙ ও রেখা আর স্বদেশ ও স্বকালের প্রতি গভীর অভিনিবেশ উপস্থাপন করেন। মুক্তিযুদ্ধে তার অমর সৃষ্টি 'এই জানোয়ারদের হত্যা করতে হবে' চিরকালের স্মারক হয়ে আছে। কামরুল হাসানের রঙ-রেখায় বহুবর্ণিল চিত্রকলা এদেশ ও মাটির অন্তরাত্মার প্রতিচ্ছবি। বরাবরই গণতন্ত্র, মানবাধিকার আর মুক্তচিন্তায় ব্রতী এই শিল্পী মানুষের বৃহত্তর মুক্তি ও কল্যাণে শিল্পচর্চা করেছেন। 'পটুয়া' পরিচয়ে খ্যাতিমান কামরুল হাসান উত্তরপ্রজন্মে অজস্র শিল্পীর অন্তহীন অনুপ্রেরণা। গতকাল [২ ডিসেম্বর] ছিল তার জন্মশতবর্ষ। বাংলাদেশের শিল্পকলার অগ্রণী পুরুষের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি...
সূচিপত্র
ধারাবাহিক: বাংলাদেশের একাত্তর
বাংলাদেশে পাকিস্তান
আফসান চৌধুরী -৪-৬
প্রচ্ছদ
তিনি কিংবদন্তি, আমাদের গর্ব
রফিকুন নবী -৭-৯
বাংলার জলকাদার শিল্পী
সৈয়দ আজিজুল হক -১০-১২
শতবর্ষের চিত্রমালা
সঞ্জয় ঘোষ -১৩-১৫
গল্প
ঠেঁরো
সোহেল মাজহার -১৮-২১
দত্তক
হাবিবুল্লাহ ফাহাদ -২২-২৪
পদাবলি -১৬-১৭
নাসির আহমেদ
সরকার মাসুদ
চঞ্চল শাহরিয়ার
রনি অধিকারী
আবু আফজাল সালেহ
সাদিক আল আমিন

দূরের সাহিত্য -২৫
ভ্রমণ
বয়স্ক হিপি ও স্পাইডার রকের স্মৃতি
শাহাব আহমেদ -২৭-২৯
কুইজ -৩১

বিষয় : কালের খেয়া

মন্তব্য করুন