যে হরিণ বৃত্ত ভেঙে ছুটে যায়;
আমি তার সাথে বনজ কুসুম, কস্তুরির ঘ্রাণ-
মাংস খুলে রাখি চর্বিগলা রাতে ...

উন্মত্ত আতর গন্ধ ছড়ালে যে রক্ত বয়ে-
নেমে আসে দেহের শ্রাবণ;
আড়ালে বিয়োগ কষে রতিঅঙ্ক বুঝি ...
আগুনের যজ্ঞে পুড়ে ছাই হলে
চারপাশে ঘোর তুলে দাও পাথর দেয়াল
অতীত শতাব্দী ঝুঁকে পড়ে মুখোমুখি- দাঙ্গা, মন্বন্তর

ইউরিয়া জলে ডুবে, তুমি ছিলে ধানক্ষেতে আড়াআড়ি আল।

বিষয় : পদাবলি

মন্তব্য করুন