জীবনসভ্যতার বিবর্তনের ধারায় অপচয়বোধ মানুষের ধারণাজগতের এক মৌলিক সংযোজন। দৈনন্দিন যাপন আর সমাজ পরিবর্তনে বিগত যুগের অপচয়বোধ পরবর্তী সময়ে বদলে যেতে পারে- তবু লক্ষ্য আর আকাঙ্ক্ষার হিসেব-নিকেশে জীবনের বহু কিছুকে কখনও কখনও অপচয় মনে হয়। বৃথা সময় ব্যয় কিংবা অযথা পরিশ্রমের এক বোধ যেন কাজ করে- জীবনের সঞ্চয় একসময় হয়ে ওঠে অপসঞ্চয়। দৈনন্দিন যাপনে শেষ পর্যন্ত প্রাপ্তি বা অপ্রাপ্তির হিসাবের সামনে মানুষ যখন দাঁড়ায়, অপচয়ের সীমারেখা তখন তাকে নানা বিভ্রমে ফেলে।
প্রচ্ছদে বিস্তারিত...
সূচিপত্র
ধারাবাহিক: বাংলাদেশের একাত্তর
১৯৭১: সকলের যুদ্ধ
আফসান চৌধুরী -৪-৬
জন্মদিন
সৈয়দ শামসুল হকের অপ্রকাশিত গদ্য ও পদ্য -৭-৯
প্রচ্ছদ
নামান্তর
ময়ুখ চৌধুরী -১০-১২
অপচয় কত প্রকার ও কী কী
টোকন ঠাকুর -১৩-১৫
এই ব্যথা হাহাকারের
জোবাইদা নাসরীন -১৬-১৭
পদাবলি -১৮-১৯
হেনরী স্বপন
ফিরোজ আহমেদ
জাহিদ সোহাগ
চাঁদনী মাহরুবা
রক্তিম রাজিব
মাহমুদা স্বর্ণা

গল্প
পাহাড়ের ঢালু জায়গায়
মূল: কমলা দাস
অনুবাদ: ফজল হাসান -২০-২২
দাহন
মনির হোসেন -২৩-২৫
বইয়ের ভুবন -২৬
ভ্রমণ
বজ্র ড্রাগনের দেশে
আশরাফুল আলম -২৮-২৯
কুইজ -৩১

বিষয় : অপচয় কালের খেয়া

মন্তব্য করুন