মাগুরা

ধর্ষণ মামলার আসামি ধরতে গিয়ে হামলায় আহত দুই এসআই

প্রকাশ: ১৩ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ১৩ জুলাই ২০১৯      

মাগুরা প্রতিনিধি

গ্রেফতার রুবেল- সমকাল

মাগুরায় ধর্ষণ মামলার এক আসামিকে ধরতে গিয়ে ধাওয়া খেয়ে এবং হামলার শিকার হয়ে ফিরেছেন দুই পুলিশ সদস্য।

শনিবার দুপুরে মাগুরা শহরের আদর্শ কলেজের পেছনের এ ঘটনায় আহত দুই উপরিদর্শক (এসআই) মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

আসামি রুবেল ওরফে ঝরু মাগুরা আদর্শ কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তিনি শহরের দোয়ারপাড়  কারিকর পাড়ার জামির মোল্যার ছেলে। পুলিশ বলছে, রুবেল আদর্শ  কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তবে  ছাত্রলীগ বলছে রুবেল ছাত্রলীগের কেউ নয়।

সদর থানা পুলিশের এসআই পারভেজ আহমেদ বলেন, সদর থানার একটি ধর্ষণ মামলার আসামি রুবেল ওরফে ঝরু আদর্শ কলেজের পাশে চক্ষু হাসপাতালের সামনে চায়ের দোকানে অবস্থান করছিল; খবর পেয়ে আমি ও সহকর্মী এসআই মাছুম তাকে আটক করতে যাই।

তিনি জানান, প্রথমে এসআই মাসুম রুবেলকে ডেকে কথা বলতে গেলে তিনি তার সাথে অশালীন আচরণ করেন। এ সময় মাসুম তাকে আটকে করতে এগিয়ে গেলে তিনি পাশের ধান ক্ষেতে কাদার মধ্যে দৌড় দেন। এসআই মাসুমও তাকে  ধাওয়া  করে  কাদার মধ্যে নেমে যান।

এসআই পারভেজ জানান, এ সময় রুবেল এসআই মাসুমের ওপর হামলায়  চালায়। এক পর্যায়ে মোটরসাইকেল রেখে তিনিও ধান ক্ষেতে নেমে রুবেলকে নিয়ন্ত্রণ করতে যান। এ সময় রুবেল তাকেও একের পর এক কিল, ঘুষি, লাথি মেরে আহত করে।

তিনি আরও জানান, কাদাপানির মধ্যে ওয়াকিটকি, হ্যান্ডকাপ, মোবাইল ও অস্ত্র, রক্ষা করতে গিয়ে তারা দুই এসআই এ সময় বেশ বিপাকে পড়েন। ঘটনার  সময় ছাত্রলীগের শতাধিক নেতা-কর্মী তাদের ঘেরাও করে ফেলেন। পরে তারা রুবেল ধর্ষণ মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি বলে তাদের জানালে, ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা সেখান থেকে সরে যান।

এসআই পারভেজ জানান, পুলিশের ওপর আসামির হামলার খবরে তাৎক্ষণিকভাবে সেখানে একাধিক পুলিশ সদস্য ও কর্মকর্তা উপস্থিত হন। পরে তারা হ্যান্ডকাপ লাগিয়ে আসামি  রুবেলকে একটি ইজিবাইকে করে থানায়  নেওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় রুবেল হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় সদর থানার ওসি তদন্তসহ তাদের ওপর চড়াও হয়ে লাথি ঘুষি মারতে থাকেন।

সদর থানার ওসি বলেন, ধর্ষণ মামলার আসামি রুবেলের হামলায় আহত  পুলিশের দুই এসআই মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন মুক্তা বলেন, রুবেল ছাত্রলীগের কেউ নয়। আদর্শ কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক রুবেল অন্য ছেলে। তার বাড়ি শহরের পারনান্দুয়ালী।