থানার পাশে বোমা ফাটিয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় আটক ৫

প্রকাশ: ০১ অক্টোবর ২০২০     আপডেট: ০১ অক্টোবর ২০২০   

যশোর অফিস

পুলিশের হাতে আটকরা -সমকাল

পুলিশের হাতে আটকরা -সমকাল

যশোরে দিনে-দুপুরে থানার একশ’ গজের মধ্যে বোমা ফাটিয়ে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত অভিযোগে পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। উদ্ধার করা হয়েছে ২ লাখ ৪৮ হাজার ৫শ’ টাকা, ২টি চাকু, ব্যাগ ও ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল। গত দু’দিন জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের চিহ্নিত এবং আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- যশোর শহরের পুলিশ লাইন টালিখোলা এলাকার শফি দারোগার বাড়ির ভাড়াটিয়া ফরিদপুর জেলার মুনসুর মোল্লার ছেলে টিপু (২৪), শহরের বারান্দি মোল্লাপাড়া এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে সাঈদ ইসলাম ওরফে শুভ (২৪), ধর্মতলা হ্যাচারিপাড়া এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে বিল্লাল হোসেন ওরফে ভাগনে বিল্লাল (২২), সিটি কলেজ ব্যাটারিপট্টি এলাকার নিজাম উদ্দিনের ছেলে রায়হান (২৮) ও পূর্ব বারান্দি মালোপাড়া এলাকার মুফতি আলী হুসাইনের ছেলে ইমদাদুল হক (২১)।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান যশোরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন। তিনি বলেন, ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত প্রত্যেকের নামে থানায় বিভিন্ন অপরাধে মামলা রয়েছে। ঘটনার পর সেখানে থাকা সিসি টিভির ফুটেজ এবং তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামিদের শনাক্ত করা হয়। আটক ছিনতাইকারীরা শহরের মণিহার এলাকায় চলাফেরা করে।

তিনি জানান, ছিনতাইয়ের মূল পরিকল্পনাকারী টিপু আটক হলেও বাস্তবায়নকারী রাজ্জাক ফকির ওরফে জামাই রাজ্জাকসহ চিহ্নিত আরও দু’জনকে আটকের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। একজন গডফাদারের ছত্রছায়ায় এই অপরাধীরা থাকে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাউদ্দিন শিকদার, কোতোয়ালি থানার ওসি মনিরুজ্জামান, ডিবি ওসি মারুফ আহম্মদ প্রমুখ।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর দিনে-দুপুরে থানার একশ’ গজের মধ্যে বোমা ফাটিয়ে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। এ সময় ছুরিকাঘাতে টাকা বহনকারী এনামুল হক আহত হন।