নাইকো দুর্নীতি মামলা: অভিযোগ গঠনের ওপর শুনানি ফের পেছাল

প্রকাশ: ৩০ মে ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া- ফাইল ছবি

নাইকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া হাসপাতালে থাকায় অভিযোগ (চার্জ) গঠনের ওপর শুনানি ফের পিছিয়ে ২৩ জুন ধার্য করেছেন আদালত। আসামিপক্ষের সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান  বৃহস্পতিবার এ দিন ধার্য করেন। 

কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে ২ নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে এ মামলার বিচার কাজ চলছে। এদিন এ মামলাটি চার্জ শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে খালেদা জিয়ার পক্ষে তার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহসহ অন্য আইনজীবীরা চার্জ শুনানির দিন পেছানোর আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত সময় আবেদন মঞ্জুর করে ২৩ জুন শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

এ সময় দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল উপস্থিত ছিলেন। গত ১ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে কারা কর্তৃপক্ষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করে। কানাডিয়ান কোম্পানি নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের বিপুল আর্থিক ক্ষতিসাধন ও দুর্নীতির অভিযোগে ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুদক। প্রথমে মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়। পরে ২০০৮ সালের ৫ মে মামলায় খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে দুদক। অভিযোগপত্রে প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।

পরোয়ানা তামিল প্রতিবেদন পিছিয়েছে :জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আওয়ামী লীগকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করার অভিযোগের মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিলের জন্য গুলশান থানাকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার মামলার গ্রেফতার তামিল সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। তবে গুলশান থানার ওসি প্রতিবেদন দাখিল করতে না পারায় মহানগর হাকিম জিয়াউর রহমান ৪ জুলাই পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

এদিন মামলার বাদী এ বি সিদ্দিকী আদালতে হাজির না হওয়ায় তার পক্ষে আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ সময়ের আবেদন করলে বিচারক আবেদন মঞ্জুর করেন।