হলমার্কের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলামকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

প্রকাশ: ১৬ জুন ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ভুয়া কাগজপত্রের ভিত্তিতে জনতা ব্যাংকের প্রায় ৮৬ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় হলমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলামের জামিন বাতিল করেছেন আপিল বিভাগ। পাশাপাশি চার সপ্তাহের মধ্যে তাকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ রোববার এই আদেশ দেন।

এর আগে শুনানির সময় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) তদন্ত কর্মকর্তার সঙ্গে ঘুষ লেনদেনের কথা স্বীকার করার পরও পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানকে কেন গ্রেফতার করা যাচ্ছে না, তা নিয়েও উষ্মা প্রকাশ করেন আপিল বিভাগ।

আদালতে জেসমিন ইসলামের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মনসুরুল হক চৌধুরী ও আবদুল মতিন খসরু। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ খুরশীদ আলম খান।

আদেশের পর খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের বলেন, জনতা ব্যাংকের ৮৫ কোটি ৮৭ লাখ ৩৩ হাজার ৬১৬ টাকা আত্মসাতের মামলায় হাইকোর্ট গত ১০ মার্চ জেসমিন ইসলামকে জামিন দিয়েছিলেন। পরে এ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করে দুদক। আপিল বিভাগ আবেদনের শুনানির পর জেসমিনের জামিন বাতিল করে চার সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন।

২০১৬ সালের ১ নভেম্বর জেসমিন ইসলামসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে রাজধানীর মতিঝিল থানায় মামলা করেন দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক জয়নাল আবেদীন। মামলার অভিযোগে বলা হয়, তারা ভুয়া কাগজপত্রের ভিত্তিতে দুটি প্রতিষ্ঠানের নামে ৮৫ কোটি ৮৭ লাখ ৩৩ হাজার ৬১৬ টাকা তুলে আত্মসাৎ করেছেন। এ মামলায় গত ১০ মার্চ জেসমিন ইসলামকে জামিন দেন হাইকোর্ট।

এদিকে সম্পদের হিসাব বিবরণী না দেওয়ার অভিযোগে দুদকের একটি মামলায় গত বছরের ১১ জুলাই জেসমিনকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। তবে এ মামলায়ও তিনি বর্তমানে জামিনে আছেন।

বিষয় : হলমার্ক জেসমিন ইসলাম