সারওয়ার আলীকে হত্যাচেষ্টা: ৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

প্রকাশ: ১৬ জুন ২০২০   

আদালত প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের অন্যতম ট্রাস্টি ডা. সারওয়ার আলীর উত্তরার বাসায় হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলায়  ৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইর পরিদর্শক তরিকুল ইসলাম রোববার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। করোনাভাইরাসের কারণে আদালত এখন বন্ধ রয়েছে। আদালত খোলার পর অভিযোপত্র গ্রহনের প্রক্রিয়া শুরু হবে। 

মঙ্গলবার গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানিয়েছেন আদালত সংশ্লিষ্ঠরা। তারা জানান, চার্জশিটে ৭ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের অব্যাহতির আবেদন করা হয়েছে।

অভিযোগপত্রভুক্ত আসামিরা হলেন- শেখ নাজমুল, শেখ রনি, ফয়সাল কবির সাদবির, ফরাজ, মনির হোসেন, আল আমিন মল্লিক ও নুর মোহাম্মদ মোল্লা। অব্যাহতির আবেদনকারীরা হলেন হাসান ও হাফিজুর ইসলাম।

আসামি ফরাজ কিশোর হওয়ায় তার বিরুদ্ধে শিশু আইনে পৃথক অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

চলতি বছর ৫ জানুয়ারি রাতে আসামিরা উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরে ছায়ানটের নির্বাহী সভাপতি সারওয়ার আলীর বাড়িতে প্রবেশ করে। তারা বাড়ির তৃতীয় তলায় গিয়ে তার মেয়ে সায়মা আলী ও তার স্বামীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা চালায়। পরে বাড়ির চতুর্থ তলায় গিয়ে সারওয়ার আলী ও তার স্ত্রীকেও হত্যার চেষ্টা করে। এ ঘটনায় সারওয়ার আলী দুজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে আসামি কওর উত্তরা পশ্চিম থানায় হত্যাচেষ্টার মামলা করেন। তার স্ত্রী মাখদুমা নার্গিস কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্পের সাবেক পরিচালক।