ফারমার্স ব্যাংকের অর্থ কেলেঙ্কারি

রাশেদ চিশতীর জামিন আদেশ চেম্বারে স্থগিত

প্রকাশ: ২১ জুন ২০২০     আপডেট: ২১ জুন ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক পরিচালক রাশেদুল হক চিশতীকে এক মামলায় হাইকোর্টের দেয়া জামিন আদেশ স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার (ভার্চুয়াল ) আদালত। একই সঙ্গে তিন মামলায় জামিন আদেশ বাতিল চেয়ে দুদকের করা আপিল আবেদন নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়েছেন আদালত। 

বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর  বেঞ্চ রোববার উভয়পক্ষের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। ফলে রাশেদুল হক চিশতীকে আপাতত কারাগারেই থাকতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দুদক আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। 

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী এএম আমিন উদ্দিন। সঙ্গে ছিলেন জেড আই খান পান্না।

এর আগে গত ১৬ জুন রাশেদুল হক চিশতীকে দেয়া চার মামলায় জামিন সংক্রান্ত আপিল শুনতে অপারগতা প্রকাশ করেন ভার্চুয়াল চেম্বার জজ আদালত। একই সঙ্গে হাইকোর্টেও দেয়া আদেশ স্থগিত চাওয়া সংক্রান্ত আবেদনের নথি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠিয়ে দেন আদালত। এ

রপর শনিবার প্রধান বিচারপতি আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীকে দায়িত্ব দিয়ে জামিন সংক্রান্ত আবেদনগুলো শুনানির জন্য বেঞ্চ গঠন করেন। সে অনুযায়ী রোববার চার মামলায় জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হয়।

দুদক আইনজীবী জানান, মাহবুবুল হক চিশতীর ছেলে রাশেদুল হক চিশতী মানিলন্ডারিং ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের পৃথক পাঁচটি মামলায় বিচারিক আদালত  থেকে জামিন নেন। চারটিতে ঢাকার আদালত এবং একটি টাঙ্গাইলের আদালত জামিন দেন। এর মধ্যে চারটি মামলায় হাইকোর্টে জামিন বহাল থাকে এবং একটি মামলায় হাইকোর্ট জামিন আদেশ স্থগিত করেন। এর মধ্যে দুদক তিনটি মামলায় জামিন আদেশ বাতিল চেয়ে এবং রাশেদুল হক চিশতী এক মামলায় হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশ বাতিল চেয়ে চেম্বার আদালতে আপিল করেন।