নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় রিটের আদেশ বুধবার

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০     আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০   

 সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপুরণ দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে করা রিটের শুনানি শেষ হয়েছে। বুধবার এ বিষয়ে আদেশ দেওয়া হবে।

বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ দিন ধার্য করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী তৈমুর আলম খন্দকার। তার সঙ্গে ছিলেন রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার মার ই-য়াম খন্দকার।

সোমবার মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে এ রিটটি করেন নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা ও আইনজীবী ব্যারিস্টার মার ই-য়াম। রিটে এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি কাদের দায়িত্বে অবহেলায় এই ঘটনা ঘটেছে, তা নির্ধারণে আদেশ চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া মানসন্মত সেবা নিশ্চিতে গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহ ও টেলিফোনের মতো সেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলো যাতে তাদের সেবা নিয়মিত তদারকি করে, সে জন্য রিটে আদেশ চাওয়া হয়েছে। রিটে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সচিব, তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসকসহ সংশ্নিষ্ট সাতজনকে বিবাদী করা হয়।

নারায়ণগঞ্জের তল্লায় বায়তুস সালাত মসজিদে বিস্ম্ফোরণের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি আছেন দগ্ধ ১৩ জন। গত ৪ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম তল্লা এলাকার ওই মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ হন ৩৭ জন মুসল্লি। প্রাথমিকভাবে তদন্ত কমটি মসজিদ সংলগ্ন তিতাস গ্যাসের লাইনের লিকেজ বা মসিজদে ব্যবহূত এসি বিস্ফোরণকে দায়ী করেছে। যার তদন্ত এখনও চলছে।