অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির আত্মপক্ষ সমর্থন বুধবার

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০   

 আদালত প্রতিবেদক

শামীমা নূর পাপিয়া এবং তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরী       -ফাইল ছবি

শামীমা নূর পাপিয়া এবং তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরী -ফাইল ছবি

অস্ত্র আইনে করা মামলায় যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া এবং তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরীর আত্মপক্ষ সমর্থন করে বুধবার শুনানির জন্য দিন ধার্য রয়েছে।

এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে ঢাকা মহানগর এক নম্বর বিশেষ ট্রাইবুনালের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ মঙ্গলবার এই দিন ধার্য করেন। এ নিয়ে গত ছয় কার্যদিবসে মোট ১৪ সাক্ষীর মধ্যে ১২ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হলো।

এ মামলার তৃতীয় তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব সদর দফতরের দায়িত্বরত এসআই আরিফুজ্জামান এ দিন আদালতে সাক্ষ্য দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান কৌঁসুলি (পিপি) আবদুল্লাহ আবু এবং তাপস পাল। অন্যদিকে দুই আসামির পক্ষে সাক্ষীকে জেরা করেন আইনজীবী আবু ফাতেহ মো. গোলাম ফাত্তাহ ও সাখাওয়াতউল্লাহ ভূঁইয়া।

দেশে ছেড়ে যাওয়ার সময় নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক পাপিয়া ও তার স্বামী সুমনকে গত ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে পাপিয়ার ফার্মগেটের ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগজিন, ২০টি গুলি, পাঁচ বোতল বিদেশি মদ, ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা এবং বিভিন্ন ব্যাংকের ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড জব্দ করে র‌্যাব। এ ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় অস্ত্র আইনে একটি ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি এবং বিমানবন্দর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়।

গত ২৯ জুন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব-১ এর উপ-পরিদর্শক আরিফুজ্জামান সিএমএম আদালতে এ চার্জশিট জমা দেন। ১৮ আগস্ট একই আদালত দুই আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ করেন। গত ২৩ আগস্ট একই আদালত আসামিদের অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে চার্জ গঠনের আদেশ দেন।