সেই দুই শিশুর সম্পদের হিসাব সম্পন্নের নির্দেশ

প্রকাশ: ১১ অক্টোবর ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল কে এস নবীর দুই নাতির (শিশু) সম্পদের হিসাব দুই সপ্তাহের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি এই সময়ের মধ্যে দুই শিশুর ভরণপোষণের জন্য আরও এক লাখ টাকা দিতে তাদের চাচা আইনজীবী রেহান নবীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি আবু তাহের মোহাম্মদ সাইফুর রহমানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রোববার এই আদেশ দেন। এ ছাড়া পৃথক আদেশে শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তাদের চাচা রেহান নবীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শিশুরা চাইলে তাদের মায়ের কাছে থাকতে পারবে বলেও বলা হয়েছে। আগামী ২৮ অক্টোবর বিষয়টি পরবর্তী শুনানির জন্য কার্যতালিকায় আসবে।

আদালত জানিয়েছেন, শিশুদের ইচ্ছা অনুযায়ী ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে তাদের বক্তব্য শোনা হবে। পিতৃহারা ওই দুই শিশু তাদের ধানমন্ডির বাসায় প্রবেশ করতে পারছে না- সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশনে এমন একটি লাইভ অনুষ্ঠান প্রচার করা হয়। বিষয়টি নজরে এলে ওই রাতেই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে শিশুদের বিষয়ে মধ্যরাতে আদেশ দেন বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আদেশে দুই শিশুকে তাদের বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে এবং তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। এ ছাড়া দুই শিশু ও তাদের চাচা কাজী রেহান নবীকে আদালতে হাজির হতেও বলা হয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার শুনানি নিয়ে আদেশ দেন হাইকোর্ট।

রাজধানী ধানমন্ডির একটি চারতলা বাড়ির মালিক সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল কে এস নবী। তার ছোট ছেলে সিরাতুন নবীর দুই পুত্র। অভিযোগ রয়েছে, গত ১০ আগস্ট সিরাতুন নবীর মৃত্যুর পর তার দুই ছেলেকে গত কয়েকদিন আগে বাসা থেকে বের করে দেন ওই শিশুদের আপন চাচা কাজী রেহান নবী। আগেই শিশু দুটির বাবা-মায়ের মধ্যে বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটে। এরপর বাবার মৃত্যুর পর শিশু দুটি কিছুদিনের জন্য তার মায়ের আশ্রয়ে থেকে যায়। এরপর মায়ের কাছ থেকে নিজ পিত্রালয়ে ফেরার চেষ্টা করে ওই দুই শিশু। কিন্তু তাদের আর বাড়িতে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন কে এস নবী। তিনি ২০১৮ সালে মারা যান।