রিটকারী জয়া আহসান ও ২ সংগঠন

আপাতত রাজধানীর কুকুর অপসারণ নয়: হাইকোর্ট

প্রকাশ: ১২ অক্টোবর ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাজধানীর বেওয়ারিশ কুকুর স্থানান্তরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) কার্যক্রম আপাতত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি এ মামলার শুনানি আগামী এক মাসের জন্য মুলতবিও করা হয়েছে।

বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলী সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেন। আদালত বলেছেন, ডিএসসিসির সঙ্গে কুকুর অপসারণের বিষয়ে বিভিন্ন সংগঠনের চলমান আলোচনা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কুকুর অপসারণ বন্ধ থাকবে।

আদালতে রিট আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান খান ও সাকিব মাহবুব। অন্যদিকে ডিএসসিসির পক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন।

পরে ব্যারিস্টার সাকিব মাহবুব সাংবাদিকদের বলেন, ডিএসসিসিতে কুকুর অপসারণ নিয়ে বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে মেয়রের আলোচনা চলমান রয়েছে। বিষয়টি আদালতকে অবহিত করা হয়। তাই আদালত আলোচনা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কুকুর নিধন না করতে মৌখিক আদেশ দিয়েছেন। এ ছাড়া অ্যাটর্নি জেনারেলকেও এ বিষয়ে মেয়রের সঙ্গে কথা বলতে বলেছেন।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বেওয়ারিশ কুকুর স্থানান্তরে ডিএসসিসির কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে জনস্বার্থে হাইকোর্টে রিট করেন অভিনেত্রী জয়া আহসান এবং দুই প্রাণিকল্যাণ সংগঠন অভয়ারণ্য ও পিপলস ফর অ্যানিম্যাল ওয়েলফেয়ার। রিট আবেদনে কুকুর স্থানান্তর ও ডাম্প করার বিষয়ে ডিএসসিসির কার্যক্রমের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে রুল জারিরও আদেশ চাওয়া হয়েছে। রিটে ডিএসসিসিসহ সংশ্নিষ্ট মন্ত্রণালয়কে বিবাদী করা হয়।

রিটে বলা হয়, প্রাণিকল্যাণ আইন-২০১৯-এর ধারা-৭ অনুযায়ী বেওয়ারিশ কুকুরসহ কোনো প্রাণীকে অপসারণ, স্থানান্তরিত ও ফেলে দেওয়া যাবে না। অথচ অভিযোগ রয়েছে, ডিএসসিসির মৌখিক আদেশে টিএসসি ও ধানমন্ডি থেকে বেওয়ারিশ কুকুর তুলে নিয়ে মাতুয়াইলে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এ জন্য কুকুর স্থানান্তরের বিষয়ে ডিএসসিসির সিদ্ধান্ত ও কার্যক্রমের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিটটি করা হয়।