পুনর্বাসনের আগে বিহারি ক্যাম্পের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা থেকে বিরত থাকার দাবি জানিয়েছেন বিহারি নেতারা। তারা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবিক কারণে উর্দুভাষী বাংলাদেশিদের পুনর্বাসনের যে ঘোষণা দিয়েছেন তা প্রশংসনীয়। কিন্ত সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নের আগেই বিভিন্ন ক্যাম্পে উচ্ছেদ অভিযান এবং বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছে। শনিবার রাজধানীর মিরপুরের ময়ুরি কমিউনিটি সেন্টারে উর্দুভাষী যুব-ছাত্র আন্দোলন আয়োজিত মতবিনিমিয় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে উর্দু স্পিকিং পিপলস ইউথ রিহ্যাবিলিটেশন মুভমেন্টের সভাপতি সাদাকাত খান ফাক্কু বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে কোনো সরকার এই অবহেলিত জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসনের চিন্তা করেনি। প্রথমবারের মতো বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের পুনর্বাসনের ঘোষণা দিয়েছেন। এজন্য আমরা চিরকৃতজ্ঞ। তবে গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ ও বিদ্যুৎ বিভাগের কিছু অসাধু কর্মকর্তা সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য পুনর্বাসন প্রক্রিয়া বাস্তবায়নের আগেই ক্যাম্পে উচ্ছেদ অভিযান চালানোর চেষ্টা করছেন। আদালতে বিষয়টি বিচারাধীন থাকা অবস্থাতেই চট্টগ্রামের হালিশহর ও ফিরোজশাহ কলোনীতে অবস্থিত দু'টি ক্যাম্পের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। সিয়াম সাধনার মাসে দু'টি ক্যাম্পের প্রায় ৬০০ বিহারি পরিবার বিদ্যুৎহীনভাবে কষ্টে দিন পার করছেন।

উর্দুভাষী যুব-ছাত্র আন্দোলনের সভাপতি আসিফ ইকবালের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ আলমের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, উর্দু স্পিকিং পিপলস ইউথ রিহ্যাবিলিটেশন মুভমেন্টের সাধারণ সম্পাদক শাহিদ আলি বাবলু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোক্তার হোসেন, ডব্লিউইএমবির সভাপতি মোস্তাক আহম্মেদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেহতাব আলম, এমআরডিএমের সভাপতি ওয়াসী আলম বশীর, বিএমডব্লিউডিসির সভাপতি তোফাইল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. শাওন প্রমুখ।