কোম্পানি শ্রেণির করদাতার ২০২১-২২ কর বছরের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়িয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এই শ্রেণির করদাতারা আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত জরিমানা ছাড়াই রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন। 

এনবিআর এক আদেশে করদাতাদের এ সুবিধা দিয়েছে।

এনবিআর সূত্রে জানা যায়, কোম্পানি শ্রেণির করদাতারা তাদের আয় বছর শেষের পরে সাত মাস সময় পান আয়কর রিটার্ন দাখিলের জন্য। বাংলাদেশের অধিকাংশ কোম্পানির আয় বছর অর্থবছরের (জুলাই থেকে জুন) সঙ্গে মিলিয়ে। আর ব্যাংক, বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বহুজাতিক কোম্পানিগুলো পঞ্জিকা বছরের (জানুয়ারি-ডিসেম্বর) সঙ্গে মিলিয়ে আয় বছর ঠিক করে। দুই একটি বহুজাতিক কোম্পানি রয়েছে যাদের আয় বছর এপ্রিল থেকে মার্চ মাস। তবে ব্যাংক, বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বহুজাতিক কোম্পানিগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আয়কর রিটার্ন দাখিল করে। যে কারণে এনবিআর দেশীয় অন্য কোম্পানির আয় বছর অর্থাৎ জুলাই থেকে জুন সময়কে কোম্পানির আয় বছর বিবেচনা করে রিটার্ন দাখিলের সময় নির্ধারণ করে। সেই হিসাবে ২০২১-২২ কোম্পানি শ্রেণির আয়কর দাখিলের সময় শেষ হয়েছে গত জানুয়ারিতে। অনেক কোম্পানিই ইতোমধ্যে আবেদন করে সময় নিয়েছে। আবার অনেক কোম্পানি আবেদন করেনি। কোম্পানিগুলোর সুবিধা বিবেচনা করে এবং রাজস্ব সংগ্রহের স্বার্থে সব কোম্পানির জন্য আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় ১৫ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। 

দেশে প্রায় ২৫ হাজার কোম্পানি রিটার্ন দাখিল করে থাকে।

ব্যক্তি শ্রেণির করাদাতারা সাধারণভাবে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে পারেন। এর পরও রিটার্ন দাখিলের সুযোগ থাকে করাদাতাদের। তবে সেক্ষেত্রে করদাতাকে তার সংশ্লিষ্ট কর অঞ্চলে আবেদন করে সময় নিতে হয়। এনবিআর ব্যক্তি শ্রেণির করদাতাদের রিটার্ন দাখিলের জন্য বাড়তি সময় দিয়ে থাকে।