ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী যেসব বাদাম

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

সব ধরনের বাদামে বিভিন্ন ধরনের পুষ্টি উপাদান যেমন-ভিটামিন, খনিজ, ক্যালসিয়াম এবং আনস্যাটুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। সুস্থ থাকতে এ কারণে নিয়মিত বাদাম খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

তবে বিশেষজ্ঞরা এটাও বলছেন, যাদের ডায়াবেটিস আছে তাদের সব ধরনের বাদাম খাওয়া ঠিক না। তাদের এমন কিছু বাদাম খাওয়া উচিত যেগুলো রক্তে শর্করার পরিমাণ ঠিক রেখে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। কিছু বাদাম আছে যেগুলো ডায়াবেটিসের জন্য বেশি উপকারী। যেমন-

কাজু বাদাম : ২০১১ সালে প্রকাশিত এক জার্নাল থেকে জানা যায়, কাজু বাদাম ডায়াবেটিস রোগীদের গ্লুকোজ লেভেল নিয়ন্ত্রণ করে। এ ধরনের বাদাম অক্সিডেটিভ চাপ কমায়, যা ডায়াবেটিস এবং হৃদরোগের জন্য অনেকাংশে দায়ী। প্রতিদিন কাজুবাদাম খেলে দিনের ম্যাগনেশিয়ামের চাহিদা পূরণ হয়। তবে এজন্য লবণ ছাড়া এবং কাঁচা কাজুবাদাম খেতে হবে। এছাড়া সারারাত ভিজিয়ে রেখেও পরদিন সকালে এ বাদাম খেতে পারেন।

আখরোট :  উচ্চ পরিমাণে ক্যালরি থাকলেও আখরোট শরীরের ওজনের উপর তেমন প্রভাব ফেলে না। ‘ওবেসিটি এন্ড মেটাবলিজম’ জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, আখরোট খেলে পেট ভরা অনুভূত হয়। তখন বারবার খাওয়ার প্রবণতা কমে। নিয়মিত আখরোট খেলে ওজন কমে । সেই সঙ্গে শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ভাল ফল পেতে খোসাসহ কাঁচা আখরোট খাওয়া উচিত। 

পেস্তাবাদাম : প্রোটিন ও ভাল ফ্যাটের উৎস হওয়ায় পেস্তাবাদাম খেলে দীর্ঘক্ষন পেট ভরা অনুভূত হয়। ‘রিভিউ অব ডায়াবেটিক স্টাডিজ’ এ ২০১৪ সালে প্রকাশিত এক গবেষণাপত্র থেকে জানা যায়, নিয়মিত পেস্তাবাদাম খেলে ডায়াবেটিস রোগীদের রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে থাকে।এ ব্যাপারে অবশ্য লবণযুক্ত বাদাম এড়াতে পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। 

চীনাবাদাম : প্রোটিন এবং ফাইবারের ভাল উৎস হওয়ায় চীনাবাদাম টাইপ টু –তে  ভোগা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী। প্রতিদিন চীনাবাদাম খেলে হৃদরোগজনিত জটিলতার পাশাপাশি ওজনও কমে। নিয়মিত চীনাবাদাম খেলে ডায়াবেটিস প্রতিরোধও করা যায়। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া


বিষয় : জীবনশৈলী খাবার