প্রেমের নামে প্রতারণা করে কোটি টাকা আয়!

প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯     আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইনে প্রেম করতে গিয়ে আজকাল অনেকেই প্রতারণার শিকার হচ্ছেন। একাকীত্ব কাটাতে অনেকেই সঙ্গী খোঁজেন ডেটিং অ্যাপে। আর এরই সুযোগ নিয়ে মানুষকে ফাঁদে ফেলছে প্রতারক চক্র। 

অ্যাপের মাধ্যমে পরিচয়ের পর অনেকে প্রেমের অভিনয় করে সঙ্গীর সব তথ্য জেনে নিচ্ছেন। তারপর প্রেমিক বা প্রেমিকার দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে প্রতারকরা হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। 

কিছু কিছু ক্ষেত্রে প্রতারকরা অন্যদের পরিচয় ব্যবহার করেও প্রতারণা করছে। 

য়ুক্তরাজ্যের অ্যাকশন ফ্রডের তথ্য অনুসারে, ২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে অনলাইনে বেশি প্রতারণার শিকার হয়েছেন প্রেমিক-প্রেমিকারা। গত এক বছরে যুক্তরাজ্যে প্রতারণার শিকার হয়ে ৫৪১ কোটির বেশি টাকা হারিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। 

অ্যাকশন ফ্রড বলছে, প্রেমে বেশি প্রতারণার শিকার হচ্ছেন নারীরা। কারণ ভুক্তভোগীদের দুই-তৃতীয়াংশই নারী। সিটি অব লন্ডন পুলিশ এবং দ্য ন্যাশনাল ফ্রড ইনটেলিজেন্স ব্যুরোর তথ্য অনুসারে, অ্যাকশন ফ্রডে গত বছর ৪ হাজার ৫০০ জন ডেটিং অ্যাপে প্রতারণার শিকার হয়ে অভিযোগ করেন। 

৪০ শতাংশ ভুক্তভোগী জানান, প্রতারণার শিকার হয়ে তাদের অর্থের পাশাপাশি স্বাস্থ্যও নষ্ট হয়েছে। 

জানা গেছে, অ্যাপের মাধ্যমে পরিচয়ের পর অনেক প্রেমিক বিয়ে কিংবা বাড়ি করার নাম করে সঙ্গীর কাছে টাকা চায়। কেউ বা নিজের বিপদের কথা বলেও প্রেমিক-প্রেমিকার কাছে টাকা দাবী করে। তখন প্রেমিক বা প্রেমিকা আবেগপূর্ণ হয়ে তাদের সাহায্য করে। 

যুক্তরাজ্যের ইকোনোমিক ক্রাইম ফাইন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাটি ওরোবেক বলেন, ‘আমরা প্রেমে প্রতারকদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে গ্রাহকদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি । ধোঁকাবাজির মাধ্যমে এই ভ্যালেন্টাইনে কাউকে বোকা বানানোর সুযোগ আমরা দেব না।’

তিনি জানান, সন্দেহজনক লেনদেনের ব্যাপারে ব্যাংকগুলো সতর্ক রয়েছে। তবে এ ব্যাপারে তিনি ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারকারীদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, ‘অপরিচিত কেউ টাকা চাইলে অবশ্যই খোঁজখবর নেওয়া উচিত। এমন কাউকে টাকা দেওয়া উচিত নয়, যাকে চেনেন না।’  সূত্র: স্কাই নিউজ