ডাবের পানি কি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী?

প্রকাশ: ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯     আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯      

অনলাইন ডেস্ক

ডাবের পানির গুণাগুণের কথা কমবেশি সবাই জানেন। এটি শরীরে ইলেক্ট্রোলাইটের ভারসাম্য বজায় রাখে। বিশেষ করে শরীরচর্চার পর শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখতে ভূমিকা রাখে ডাবের পানি। 

ডাবের পানিতে থাকা ভিটামিন সি, ভিাটামিন বি ১, পটাশিয়াম, সোডিয়াম, কপার, ম্যাঙ্গানিজ, সেলেনিয়াম , ফসফরাস এবং আয়রন শরীরের জন্য দারুণ উপকারী। 

ডাবের পানি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী কিনা তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তোলেন। ‘মেডিসিনাল ফুড’ জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণাপত্র থেকে জানা যায়, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ডাবের পানি দারুণ উপকারী। 

ইঁদুরের ওপর করা ওই গবেষণায় দেখা গেছে, ডাবের পানিতে থাকা এল-আরজিনাইন উপাদান রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে দেয়। 

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডায়াবেটিস রোগীদের দিনে ২৫০ মিলিলিটারের বেশি ডাবের পানি খাওয়া ঠিক নয়। কারণ এতে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে। 

বিশেষজ্ঞরা আরও বলছেন, ডায়াবেটিসের রোগীদের মধ্যে যারা নিয়মিত ডাবের পানি খান তাদের খাওয়ার জন্য কচি ডাব বেছে নেওয়া উচিত। ভিতরে নারকেল হয়ে যাওয়া ডাবের পানি খাওয়া থেকে তাদের বিরত থাকা উচিত। কারণ এ ধরনের পানিতে বেশি পরিমাণে ফ্যাট ও চিনি থাকে। 

ডাবের পানি প্রাকৃতিকভাবেই খেতে মিষ্টি ও সুস্বাদু। এতে থাকা পটাশিয়াম ও সোডিয়াম উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে। এটি খেলে ডায়াবেটিস রোগীরাও নানা ভাবে উপকৃত হন। যেমন-

১. প্রতি ১০০ গ্রাম ডাবের পানিতে ১ দশমিক ১ গ্রাম ডায়েটারি ফাইবার থাকে। এ ফাইবার রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে দেয়।

২. লো গ্লাইসেমিক ইনডেক্স থাকায় ডাবের পানি হঠাৎ করে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যাওয়া প্রতিরোধ করে। এটি টাইপ টু ডায়াবেটিসেরও ঝুঁকি কমায়।

৩. ডায়াবেটিসের কারণে দুর্বলতা, অস্বস্তি কিংবা দৃষ্টিশক্তির সমস্যা হলে ডাবের পানি তা উন্নত করতে সাহায্য করে। 

৪. ডাবের পানিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার ও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান থাকায় দীর্ঘ ক্ষণ পেট ভরা অনুভূত হয়। ক্ষুধা লাগে কম। এভাবে এটি ওজন নিয়ন্ত্রণেও ভূমিকা রাখে। এছাড়া এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। সূত্র: বোল্ড স্কাই