সম্পর্ক খারাপ হয় যেসব অভ্যাসে

প্রকাশ: ০৪ জানুয়ারি ২০২০   

অনলাইন ডেস্ক

সব সম্পর্কের ক্ষেত্রেই কিছু নীতিমালা থাকে। কখনও কখনও একজনের খারাপ কিছু অভ্যাসের কারণে আরেকজনের সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট হয়। সঙ্গীর সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার ক্ষেত্রেও এরকম কিছু অভ্যাসই দায়ী। যেমন-

১. আপনি যদি আপনার সঙ্গীকে অথবা তার কিছু অভ্যাস পরিবর্তনের চেষ্টা করেন, তাহলে আপনি যে তার চেয়ে উত্তম সেটাই বারবার মনে করিয়ে দেয়া হয়। তখন সম্পর্কে ভারসাম্যের ঘাটতি দেখা দেয়। সঙ্গীর কোনো কিছু আপনার পছন্দ না হলে সেটা তার সঙ্গে খোলাখুলি আলোচনা করুন। তার ওপর কোনো সিদ্ধান্ত চাপানোর চেষ্টা করবেন না।

২. যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিংহাম ইয়ং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে কঠিন কথাবার্তা চালালে দাম্পত্য কলহ বাড়ে। কোনো ব্যাপারে সমস্যা থাকলে মুখোমুখি কথা বলা ভালো। অন্যদিকে ক্ষুদে বার্তায় রোমান্টিক কথাবার্তা আদান প্রদান হলে সম্পর্ক দৃঢ় হয়। 

৩. সঙ্গীকে না জানিয়ে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে হাতাশার কথা কখনোই সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করা ঠিক নয়। এতে আপনার সঙ্গে যেকোনো ব্যাপারে খোলাখুলি আলাপ করতে আপনার সঙ্গী অস্বস্তি বোধ করবে, যা আপনাদের সম্পর্কের মধ্যেও দুরত্ব আনবে। 

৪. অন্য কারও সঙ্গে নিজের সঙ্গীর বারবার তুলনা করা মোটেও উচিত নয়। এ ধরনের অভ্যাসে অপরপক্ষের মধ্যে হতাশা, দ্বিধা তৈরি হয়। এতে সম্পর্কেরও অবনতি ঘটে। 

৫. যখন একটা সম্পর্কের মধ্যে থাকবেন তখন সঙ্গী আপনার দোষ-ত্রুটি, সমস্যা নিয়ে সমালোচনা করতেই পারে। এ ধরনের সমালোচনা গ্রহণ করার মানসিকতা থাকতে হবে। সবসময় সঙ্গীর কথায় দ্বিমত করা মোটেও ভালো নয় সম্পর্কের ক্ষেত্রে। কারণ, এটা মনে রাখা দরকার, জগতে কোনো মানুষই নিঁখুত নয়। 

৬. কিছু কিছু দম্পতি আছেন যারা লোকজন, আত্মীয়স্বজন কিংবা বন্ধু-বান্ধবের সামনে সঙ্গীর সঙ্গে তর্ক করেন, একে অন্যকে নিচু প্রমাণ করার চেষ্টা করেন। এ ধরনের সম্পর্ক খুবই বিব্রতকর। এতে দ্রুতই যেকোনো সম্পর্ক নষ্ট করে দেয়। সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস