ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এই সময়ে শিশুকে সুরক্ষিত রাখবেন কীভাবে?

এই সময়ে শিশুকে সুরক্ষিত রাখবেন কীভাবে?

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ০৬:৩০ | আপডেট: ২৮ অক্টোবর ২০২৩ | ০৬:৩০

প্রকৃতিতে কমছে তাপমাত্রা। ভোরের দিকে ঠান্ডা হাওয়ার পরশ পাওয়া যাচ্ছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের এই সময় প্রাপ্তবয়স্কদের তো বটেই, শিশুদের উপরও ক্ষতিকারক প্রভাব পড়ে। এই সময়ে অনেক শিশুই জ্বর, সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হয়। আর কারও যদি শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা থাকে, তাহলে তার শরীর খারাপ হওয়ার আশঙ্কা আরও বেড়ে যায়। এজন্য এখন থেকেই সাবধানে থাকার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

এই আবহাওয়ায় শিশুদের সুস্থ রাখতে কী করবেন-

 ১. সন্ধ্যায় বাইরে থাকার পরিকল্পনা থাকলে শিশুর গরম পোশাক সঙ্গে রাখুন। স্কার্ফও রাখতে পারেন। সন্ধ্যায় সামান্য ঠান্ডা লাগলে তাকে গরম পোশাক পরিয়ে রাখুন। মাথা জড়িয়ে দিন স্কার্ফে। তাহলে তাকে সুরক্ষিত রাখতে পারবেন।

২. চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন। এই সময়ে অনেক চিকিৎসক শিশুদের ভ্যাক্সিন বা বিশেষ ওষুধ খাওয়ানোর পরামর্শ দেন। আপনার শিশুকেও এমন কোনও ওষুধ বা ভ্যাক্সিন দিতে হবে কিনা, তা চিকিৎসকের থেকে জেনে নিতে পারেন। এতে শিশু সুস্থ থাকবে। 

৩. মাস্ক এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পারেন। শীতকালে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ কম থাকে। তাই এই সময়ে বাতাস আরও বেশি রুক্ষ এবং শুষ্ক হয়ে যায়। দূষণের মাত্রাও বাড়ে। তাই শরীর খারাপের আশঙ্কাও তৈরি হয়। শিশুকে সুরক্ষিত রাখার জন্য মাস্ক পরাতে পারেন। নিয়মিত স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পারেন। খাবার খাওয়ার আগে হাত সাবান দিয়ে ধুতে ভুলবেন না। সে যেন বারবার চোখ, নাক ও মুখে হাত না দেয়, সেই কথাও তাকে শিখিয়ে দিন।

৪. অনেক শিশুরই শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা থাকে। তাদের এই সময়ে খুব সাবধানে রাখুন। শ্বাসকষ্ট যাতে না বাড়ে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। তাকে আগলে রাখুন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চলুন।


যাদের অটোইমিউন ডিজিজ রয়েছে, তাদেরও এই সময়ে অতিরিক্ত সাবধানে থাকা জরুরি। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন এবং শিশুকে সুরক্ষিত রাখুন। এই সময় থেকেই নিয়ম মেনে চললে সম্পূর্ণ শীতকালে তাকে সাবধানে রাখতে পারবেন।

আরও পড়ুন

×