সুস্থ থাকতে নিয়মিত ব্যায়ামের পাশাপাশি সঠিক খাদ্যাভাস জরুরি। এজন্য প্রতিদিন এমন কিছু খাওয়া উচিত যা শরীরে পুষ্টির ঘাটতি পূরণ করে। এমন কিছু বীজ আছে যেগুলি সুপাফুড হিসেবে পরিচিত। এগুলো খেলে শরীর একদিকে যেমন পুষ্টি পায়, তেমনি সুস্থও থাকা যায়।  যেমন-

কাঁঠাল বীজ : গরমের সময় কাঁঠাল পাওয়া যায় সহজেই। কাঁঠাল খাওয়ার পর বীজগুলো নানা ভাবে খাওয়া যায়। এটি খেতেও বেশ সুস্বাদু। কাঁঠালের বীজ হজমশক্তি বাড়াতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে খুব উপকারী।

বেদানা বীজ
: বেদানার প্রচুর গুণ রয়েছে। বেদানার বীজকেও সুপার ফুড বলা যায়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর এই বীজ শরীর সুস্থ রাখতে তো বটেই, ত্বক ও চুলের যত্নেও খুব কার্যকরী। বেদানার বীজ রোস্ট করে গুঁড়ো করে সালাদে ছড়িয়ে খেতে পারেন, আবার পানিতে মিশিয়েও খেতে পারেন।

কুমড়ার বীজ : কুমড়োর বীজকে সুপার ফুড বলা হয়। এতে ফলিক অ্যাসিড রয়েছে এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি রয়েছে। অনেকেই কুমড়োর বীজ রোস্ট করে খান। এটি ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে, ওজন কমাতে ভূমিকা রাখে।

তরমুজ বীজ : গরমে শরীরে পানির ভারসাম্য বজায় রাখতে তরমুজের জুড়ি নেই। তরমুজের বীজে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। সকালে উঠে খালিপেটে যদি কয়েকটি রোস্ট করা তরমুজের বীজ খেতে পারেন তাহলে মুখের বলিরেখা দূর হবে।

তেঁতুল বীজ : তেঁতুল খেতে যেমন সুস্বাদু, তেমনি এর বীজও খুব উপকারী। নানারকম আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরি করতে তেঁতুলের বীজ ব্যবহার করা হয়।

মন্তব্য করুন