করোনা সংক্রমণের অন্যতম উপসর্গ হচ্ছে শুকনো কাশি। অন্যান্য সমস্যা কমে গেলে কারও কারও ক্ষেত্রে শুকনো কাশি থেকে যাচ্ছে দীর্ঘ দিন। এছাড়া করোনা আক্রান্ত হলে গলায় ব্যথা, শরীরে জ্বালা এসব সমস্যাও দেখা দেয়। শুকনো কাশি বেশিক্ষণ চললে মুখের ভিতরটাও শুকনো লাগে। খাবার গিলতে অসুবিধা হয়। এ দিকে, এই কাশি সারতেও সময় নেয় অনেক বেশি। চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধ তো খেতে হবেই। এর পাশাপাশি ঘরোয়া কিছু সমাধানও অনুসরণ করতে পারেন। যেমন-

মধু : গলায় ব্যথা কিংবা খুশখুশে কাশি - সব ধরনের সমস্যাতেই মধু উপকারী। এতে ব্যাকটেরিয়া এবং ফাঙ্গাসের সঙ্গে লড়াই করার ক্ষমতা রয়েছে। এতে শরীরের উপকারী অনেক অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টও রয়েছে। শুকনো কাশি থেকে মুক্তি পেতে দিনে দুইবার করে গরম পানিতে দুই চামচ মধু মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে গলা অনেকটাই আরাম পাবে।

আদা : অনেক অসুখ সারাতেই ‌আদা কাজ করে। বিশেষ করে কোনও ধরনের সংক্রামক রোগের ক্ষেত্রে এটি খুবই কার্যকর। কাশি না কমলে বাড়িতেই আদা দিয়ে চা তৈরি করে দিনে একাধিক বার খেতে পারেন। আরাম পাবেন। এছাড়া অন্য খাবার খাওয়ার সময়ে সঙ্গে একটু আদা দেওয়া চা রাখা যায়। এতে খাবার গিলতে সুবিধা হবে।

লবণ পানি : হালকা গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে মাঝে মধ্যে কুচিকুলি করতে হবে। লবণ জীবাণু তাড়াতে সাহায্য করে। সংক্রমণের কারণে শরীরে যে জীবাণু ঢুকেছে, তার সঙ্গে লড়াই করতে পারে লবণ । কয়েকদিন টানা কুলিকুচি করলে গলায় আরাম লাগবে।

মন্তব্য করুন