অনেকেই চুলে শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার ব্যবহারে যতটা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন তেল দিতে ততটা পছন্দ করেন না। কিন্তু চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চুলকে পুষ্টি দেওয়াটা জরুরি। এজন্য চুলে নিয়মিত তেল দেওয়া দরকার। চুলের ডগা ফেটে গেলে বা চুল ঠিকমতো না বাড়লে তেল মালিশের কোনও বিকল্প নেই। এক্ষেত্রে বাজারচলতি তেল না কিনে অনায়াসে বাড়িতেই তেল তৈরি করতে পারেন। চুলের ডগা ফাটার মতো সমস্যা কমিয়ে দ্রুত চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে এসব ঘরোয়া তেল। যেমন-

জবার তেল

জবাতে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি ও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান থাকায় এটি চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

কীভাবে বানাবেন: আধাকাপ জবা গাছের পাতা ও দুটি জবা ফুল নিন। ভালো করে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে গ্যাসের আঁচে শুকিয়ে নিন। এবার একটি পাত্রে ১/৪ কাপ নারকেল তেল, ১/৪ কাপ আমন্ড অয়েল, শুকিয়ে রাখা জবা পাতা ও জবা ফুল মিশিয়ে হালকা আঁচে মিনিট পাঁচেক গরম করুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে শিশিতে ভরে নিন।

পেঁয়াজের তেল

পেঁয়াজে থাকা সালফার জাতীয় উপাদান চুলের টাক পড়া কমায়, নতুন চুল গজাতেও সহায়তা করে। চুলের বৃদ্ধিতে পেঁয়াজের ভূমিকা অপরিসীম।

কী ভাবে বানাবেন: ছোট দেখে একটা পেঁয়াজ ভালো করে কুচিয়ে নিন। এবার একটি পাত্রে ৬ টেবিল চামচ নারকেল তেল, ২ কোয়া রসুন ও পেঁয়াজকুচি দিয়ে গরম করুন। বুদবুদের মতো উঠলে আঁচ বন্ধ করে ঠান্ডা করতে দিন। এবার কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল ছড়িয়ে শিশিতে ভরে নিন।

অ্যালোভেরার তেল

চুলের যত্নে অ্যালোভেরা খুবই উপকারী। নিয়মিত অ্যালোভেরা ব্যবহার করলে চুল শক্তিশালী হয়।

কীভাবে বানাবেন: অ্যালোভেরার পাতা কেটে জেল বের করে নিন। আধা কাপ অ্যালোভেরা জেল আর আধা কাপ নারকেল তেল মিশিয়ে নিয়ে হালকা আঁচে মিনিট পাঁচেক গরম করতে দিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে শিশিতে ঢেলে রাখুন।

বিষয় : ঘরোয়া তেল চুলের বৃদ্ধি চুলের জন্য উপকারী

মন্তব্য করুন