যেকোন উৎসব বা অনুষ্ঠানে যতই সাজগোজ করা হোক না কেন যদি চেহারায় ক্লান্তির ছাপ এবং রোদে পোড়া ভাব থেকে যায়, তা হলে সাজটাই মাটি হয়ে যায়।  এ সময় ত্বকের একটু বাড়তি যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে খানিকটা সময় বের করে বাড়িতেই করতে পারেন ফেসিয়াল।

যেভাবে করবেন ফেসিয়াল-

ক্লিনজিং : যে কোনও রূপচর্চার প্রথম ধাপ হলো ত্বক ভালো করে পরিষ্কার করা। এজন্য বেসন এবং সামান্য দই মিশিয়ে একটি প্রলেপ বানিয়ে নিন। মুখ পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে একটি নরম কাপড় দিয়ে মুছে নিন। তার পর এই প্রলেপ লাগিয়ে ১০ মিনিট রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে প্রথমে ভিজিয়ে নিয়ে ঘষে ঘষে তুলে ফেলুন। এত ত্বকের ময়লা দূর হবে।

স্ক্রাব : ভালো করে ধুলোময়লা তুলে ফেলতে শুধু একবার পরিষ্কার করলে চলবে না। সমস্ত মৃত কোষ দূর করতে স্ক্রাব ব্যবহার করা দরকার। কফির গুঁড়ো এবং সামান্য নারকেল তেল মিশিয়ে একটি স্ক্রাব তৈরি করুন। মুখে লাগিয়ে ভালো করে আলতোভাবে ঘষতে হবে। যাদের ত্বক বেশি স্পর্শকাতর তাদের বেশি জোরে স্ক্রাব করলে ব্রণ বেরিয়ে যেতে পারে। স্ক্রাব করা শেষে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

ম্যাসাজ : স্ক্রাব করার পর প্রয়োজন ত্বকের বাড়তি যত্নের। এজন্য গরম পানিতে ভাপ নিতে হবে অন্তত ১৫ মিনিট। একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে মাথার উপর গামছা বা তোয়ালে দিয়ে ঢেকে ভাপ নিতে হবে। ভাপ নেওয়া হলে মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগান। অন্তত মিনিট ১৫ মুখে আঙুল দিয়ে ম্যাসাজ করতে হবে। হয়ে গেলে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

ময়েশ্চারাইজিং : সব শেষে প্রয়োজন ত্বক আর্দ্র করার। না হলে ফেসিয়ালে যা যা উপকার হল, সেই গুণ নিমেষে উধাও হয়ে যাবে। এজন্য বাড়িতে খাঁটি অ্যালোভেরা জেল থাকলে তা লাগিয়ে নেওয়া সবচেয়ে ভালো। তা না হলে যে ক্রিম ব্যবহার করেন, সেটাই ভালো করে মুখে-গলায় লাগিয়ে নিতে পারেন।