রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার মাঝিপাড়া-বড় করিমপুর গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের ১৬৯ পরিবারের মধ্যে ২৫০ বস্তা খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র।

শুক্রবার এলাকার বটের হাটবাজারে এ ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। সাম্প্রদায়িক হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেক পরিবারকে ১৫ কেজি চাল, ১০ কেজি আটা, পাঁচ কেজি আলু, দুই কেজি ডাল ও এক লিটার সয়াবিন তেল দেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালক কাওছার আলী রেজা, ফিজিওথেরাপিস্ট নাবিল হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মহিদুল ইসলাম। এ ছাড়া বিতরণকালে সহযোগিতা করেছেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য, রাধাগোবিন্দ মন্দিরের সম্পাদকসহ পাঁচ স্বেচ্ছাসেবী।

গত ১৫ অক্টোবর মাঝিপাড়া-বড় করিমপুর গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের ৬১টি বাড়ি ও দুটি মন্দিরে অগ্নিসংযোগ এবং লুটপাটের ঘটনা ঘটে। গত বুধবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ ২১ সদস্যের টিম ওই এলাকা পরিদর্শন এবং ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় লোকজনের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতি পরিবারের মধ্যে এক মাসের খাদ্যসামগ্রী বিতরণের কথা বলেন। কিন্তু অতিবৃষ্টির কারণে সেদিন বিতরণ করা সম্ভব হয়নি।