দেশের শীর্ষস্থানীয় ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড নিয়ে এলো করোনা চিকিৎসায় বিশ্বের প্রথম মুখে খাওয়ার ওষুধ মোলনুপিরাভির, যা মোলভির (Molvir) ক্যাপসুল নামে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। 

গত বৃহস্পতিবার স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের পক্ষ থেকে সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট এবং টেকনিক্যাল সার্ভিসেস ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর এরিক এস চৌধুরী আনুষ্ঠানিকভাবে মোলভির-এর মোড়ক উন্মোচন করেন। মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে মোলভির সম্পর্কিত বৈজ্ঞানিক তথ্যাদি উপস্থাপন করেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের পক্ষ থেকে মার্কেটিং ডিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার মো. আতিকুজ্জামান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মার্কেটিং ডিভিশনের ডিরেক্টর আহমেদ কামরুল আলম। অনুষ্ঠানে কোম্পানির পক্ষ থেকে আরও উপস্থিত ছিলেন জেনারেল ম্যানেজার (সেলস্) মাহমুদুর রহমান ভুইয়াসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

গত ৮ নভেম্বর ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর কর্তৃক স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড মোলনুপিরাভির উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের জরুরি অনুমোদন পায়। কোভিডের চিকিৎসায় জরুরি ব্যবহারের জন্য এই অ্যান্টি-ভাইরাল ওষুধটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর আগে গত ৪ নভেম্বর মোলনুপিরাভির রোগীদের জন্য ব্যবহারের অনুমোদন দেয় যুক্তরাজ্যভিত্তিক ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা UKMHRA.

যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মার্ক এবং রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস-এর তৈরি করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় এটিই প্রথম ওষুধ যেটি মুখে সেবন করতে হবে।

ওষুধটির ওপর গবেষণা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স ও জার্মানি সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। মোলনুপিরাভির কোভিডের চিকিৎসায় রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুহার ৫০ শতাংশ কমিয়ে আনতে পারে।

গুনগত মানের দিক থেকে স্কয়ারের মোলভির ক্যাপসুল অনেকাংশে এগিয়ে রয়েছে। দ্রুত দ্রবণীয় হওয়ায় স্কয়ারের মোলভির ক্যাপসুল ৩০ মিনিটে এর কার্যকারিতা শুরু করে। এছাড়া এর ফর্মুলেশনে সোডিয়াম না থাকায় তা কিডনি ও হার্টের রোগীদের জন্যেও নিরাপদ।  

চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী কেবলমাত্র ১৮ বছরের উপরে করোনায় আক্রান্তরা এ ওষুধ সেবন করতে পারবেন। সকালে ৪টি ও রাতে ৪টি করে ক্যাপসুল মোট ৫ দিন খেতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এই ওষুধ সেবন করা যাবে না।

উল্লেখ্য, দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে ও করোনা দুর্যোগে স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড সকল জরুরি ওষুধসহ করোনায় ব্যবহৃত ওষুধসমূহ যেমন ফেভিনিল (ফেভিপিরাভির), রেমডিনিল (রেমডেসিভির), এলাইস ট্যাবলেট (আইভারমেকটিন), জার্মিসল হ্যান্ড রাব ইত্যাদি ওষুধের নিরবিচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত করে যাচ্ছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

বিষয় : মোলনুপিরাভির মোলভির করোনার ওষুধ

মন্তব্য করুন