আবারও করোনা সংক্রমণের হার বাড়ছে। অধিকাংশ করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে মৃদু উপসর্গ থাকছে বলেই জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা। আবার অনেকেই করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন, অথচ শরীরে কোনও উপসর্গ নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে,এ সময় আতঙ্ক নয়, বরং সতর্ক থাকলেই কোভিডকে জয় করা যাবে। এর জন্য খাদ্যতালিকায় বিশেষ পরিবর্তন আনা জরুরি।  যেমন-

১. চিনি খাওয়া ছেড়ে দিন। চিনি মেশানো চা বা মিষ্টি দেওয়া খাবার না খাওয়াই উচিত এই সময়। এর পরিবর্তে পর্যাপ্ত পরিমাণে মৌসুমি ফল খান।  এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে।

২. উপসর্গ না থাকলেও করোনা আক্রান্ত হলেই অক্সিজেন স্যাচুরেশন কমতে থাকে। এ জন্য বাড়তি সকর্তকা প্রয়োজন। লবণ রক্তচাপ বাড়ায়। করোনা আবহে দৈনিক ৫ গ্রামের বেশি লবণ খেতে নিষেধ করছেন বিশেষজ্ঞরা।

৩. শীতের সময় ঘন ঘন চা, কফি খাবেন না। এর ফলে শরীর শুকিয়ে যায়।

৪. দুধ, দইয়ে প্রোবায়োটিক থাকে। যা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করে।

৫. আদা-রসুন-পেঁয়াজ-হলুদ প্রাকৃতিকভাবে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। করোনাকালে নিয়মিত এসব খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

এছাড়াও অ্যালকোহল, সিগারেট, তৈলাক্ত, মশলাদার, আধসিদ্ধ খাবার খেতে নিষেধ করছেন পুষ্টিবিদরা। এমনকী ফ্রিজে রাখা কোনও ঠান্ডা খাবার সরাসরি খেতেও বারণ করছেন তারা।