ঢাকা থেকে বরিশালের উদ্দেশে শনিবার রাতে ছেড়ে যাওয়া সুরভি-৯ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চের ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়। এ সময় অনেক ধোঁয়া উঠছিল। পরে লঞ্চটি চাঁদপুরের মোহনপুরে থামানো হয়। রাত ৯টার দিকে লঞ্চটি সদরঘাট থেকে ছেড়ে গিয়েছিল। পরে রাত পৌনে ১২টার দিকে লঞ্চটি মোহনপুরে থামানো হয়।  

বিআইডব্লিউটিএর বন্দর কর্মকর্তা কায়সার আহমেদ জানান, দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পর সেটি মোহনপুরে রাখার কথা বলা হয়েছে। লঞ্চটি না ছাড়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিকল্প লঞ্চে যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা চলছে। 

রাত পৌনে ১টায় তিনি সমকালকে আরও জানান, যাত্রাপথে ইঞ্জিনের সাইলেন্সার থেকে ধোঁয়া উঠছিল। পরে কোনো যাত্রী জরুরি সেবা ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দেয়। লঞ্চটিতে পাঁচ শতাধিক যাত্রী ছিল। তবে যাত্রীদের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। 

চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা সাহিদুল ইসলাম বলেন, পুলিশ জানানোর পর তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তবে সেখানে আগুনের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। তারা যাওয়ার আগেই ধোঁয়া বন্ধ হয়ে গেছে। 

 এর আগে গত ২৩শে ডিসেম্বর রাতে ঢাকা থেকে বরগুনা যাওয়ার পথে অভিযান-১০ নামের একটি লঞ্চে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। এতে আগুনে পুড়ে ও পানিতে ডুবে প্রায় অর্ধশত যাত্রী প্রাণ হারান।