যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি থেকে লন্ডন যাচ্ছিল একটি উড়োজাহাজ। করোনা সংক্রমণের কারণে ফ্লাইটে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক হলেও এক নারী যাত্রী কিছুতেই তা পরতে রাজি হচ্ছিলেন না। শেষ পর্যন্ত মাঝ আকাশ থেকে ফের মায়ামিতে ফিরে আসে ওই বিমান। এর জেরে বিপাকে পড়তে হয় অন্য সব যাত্রীকে। পরবর্তী ফ্লাইট না পাওয়া পর্যন্ত মায়ামির হোটেলে থাকতে বাধ্য হন তারা।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার রাতে।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বরা হয়েছে, বার বার বলা সত্ত্বেও মধ্য ৪০ বছ বয়সী ওই নারী মাস্ক পরতে চাইছিলেন না। তখনই বিমানের কর্মীরা লন্ডনগামী বিমানটি মায়ামিতে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেন। প্রায় দেড় ঘণ্টায় উড়ে যাওয়ার পর বিমানটি ফিরিয়ে আনা হয়। মায়ামিতে নামতেই খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পরে পুলিশ এসে তাকে ধরে নিয়ে যায়।

মাস্ক পরতে না চাওয়া ওই নারী  যুক্তরাষ্ট্র না ব্রিটিশ নাগরিক তা জানা যায়নি। তবে তাকে গ্রেপ্তারও করা হয়নি।

জানা গেছে,ওই উড়োজাহাজে ১২৭ জন যাত্রী ছিলেন। বৃহস্পতিবার তাদের ফের লন্ডন উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।