সুস্থভাবে বাঁচার জন্য নিয়মিত শরীরচর্চা জরুরি । তবে কখন করতে হবে আর কখন করা যাবে না-এ নিয়ে অনেকের প্রশ্ন আছে। জার্নাল অফ ফিজিওলজি'র গবেষণা বলছে, রাতে ব্যায়াম করলে ঘুমের ব্যাঘাত হতে পারে। বিশেষ করে ভারী ব্যায়াম করলে এ সমস্যা বেশি দেখা যায়।  

বিজ্ঞানীদের মত, যদি রাতে ব্যায়াম করার পর গোসল সেরে খাবার খান এবং তারপর ঘুমাতে যান তাহলে বিপদের সম্ভাবনা কম।

তবে, সকালে ঘুম থেকে উঠেই ব্যায়াম করতে পোরলে সারাদিন ভাবনা থাকে না৷

প্রাচীন আয়ুর্বেদ চিকিৎসা অনুযায়ী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে শরীরচর্চা করার সেরা সময়। যদি সকাল ৭টার মধ্যে ঘুম থেকে উঠে যান তাহলে ৯টার মধ্যেই ব্যায়াম সেরে ফেলুন। সবথেকে ভাল হয় ১০টার আগেই যদি ব্যায়াম করতে পারেন। এরপরে করা ঠিক নয়।

আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞদের মতে, সকালে ব্যায়াম করলে সারা দিন উদ্যমী, উৎসাহী ও পজিটিভ দিক পাওয়া যায়। তা শারীরিক হোক বা মানসিক। সব দিক দিয়েই আমরা উৎসাহ পাই। শরীর চর্চার দ্বিতীয় সেরা সময় হল সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা। ঘুমানোর আগে হালকা ব্যায়াম বা হাঁটলে শরীর ভালো থাকে। তবে, ভারী ব্যায়াম করা একেবারই ঠিক নয়।

আবার এটাও ঠিক শরীরচর্চার সঠিক সময় বলে কিছু হয় না। বিশেষজ্ঞদের মতে, যারা সকাল ৯টা থেকে ৬টা পর্যন্ত কাজ করেন, তাদের সকালে উঠে ব্যায়াম করার সুযোগ নাও হতে পারে। সে ক্ষেত্রে সন্ধ্যা-রাতে একটু দৌড়নো কিংবা জিমে যাওয়ার চেষ্টা করলে ভালো। তবে যারা ভোরে ওঠেন, তাদের জন্য অবশ্যই শরীরচর্চার সবচেয়ে ভালো সময় সকাল। তবে সন্ধ্যার পরে কিছুক্ষণ ঘাম ঝরালেও ক্ষতি নেই। নিয়মিত শরীরচর্চা খুব গুরুত্বপূর্ণ। তা দিনে হোক বা রাতে যখনই হোক না কেন। তবে শরীরচর্চা একোবারে এড়িয়ে যাওয়াটা ভুল হবে।