অতিরিক্ত কাজের চাপ শারীরিক, মানসিক অস্থিরতা বাড়ায়। যার খুবই ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে ব্যক্তিগত জীবনে। এক দিকে কাজের চাপ, অন্যদিকে সম্পর্কের তিক্ততা- সব মিলিয়ে মানসিক চাপ মারাত্মকভাবে বাড়ে। এমন টানাপোড়ন হলে জীবন দুর্বিসহ হয়ে ওঠে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে দাম্পত্যে শান্তি বজায় রাখতে কিছু বিষয় মেনে চলা জরুরি। যেমন-

১. মানসিক চাপের কথা একে অন্যের কাছে এসে জানান।  সময়টা যে সত্যিই কঠিন এটা মেনে নিন। যে কোনও কঠিন পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হলে আগে সেই পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে হবে। ভাল লাগুক বা না লাগুক সঙ্গীকে পুরো বিষয়টি জানান।

২. একে অপরকে প্রয়োজনীয় জায়গা দিন। একসঙ্গে থাকলেও প্রত্যেক ব্যক্তিমানুষের কিছুটা নিজস্ব জায়গা প্রয়োজন। তা না হলে যে কোনও সম্পর্কই তিক্ততা আসতে পারে। নিজেও সেই জায়গা নিন, সঙ্গীকেও সেই জায়গাটুকু দিন। দিনে কিছুটা সময় বার করুন যেটা একান্তই আপনার নিজস্ব। সেই সময়ে নিজের পছন্দের কোনও কাজ করুন। দেখবেন বাকি সময়টা সঙ্গীর সঙ্গে কাটানো অনেক সহজ হবে।

৩. নিজেদের নতুন করে আবিষ্কার করুন । তুচ্ছ অনেক কাজও ব্যস্ততার মধ্যে হয়ে উঠতে পারে শান্তির জায়গা। সন্তানের পড়াশোনাতে একসঙ্গে সহায়তা করা থেকে শুরু করে রাতের খাবার তৈরি, সবই করুন হাত মিলিয়ে।

৪. কথোপকথনের কোনও বিকল্প নেই। মুখোমুখি বসে, কথোপকথনের মাধ্যমে টানাপোড়েন নিয়ে কথা বলুন। ঝগড়ার পরেও মানসিক আদানপ্রদানের দরজাটি যেন বন্ধ না হয় সেজন্য কথা বলাটা খুবই জরুরি।