অনেকেরই পেটের সমস্যা আছে। ভারী কিছু খেলেই গ্যাস ও পেট ফাঁপার সমস্যায় নাজেহাল হতে দেখা যায় অনেককেই। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পেটের সমস্যা কমাতে শুধু ঘন ঘন চিকিৎসকের কাছে ছুটলেই হবে না, খাদ্যাভ্যাসেও পরিবর্তন আনতে হবে। কিছু কিছু খাদ্যাভাস গ্যাসের সমস্যা কমাতে পারে। যেমন-

ফল: ফল খেলে অনেকের পেটেই সমস্যা হয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে যে ফলে কম পরিমাণ ফ্রুকটোজ থাকে, সেই ফলগুলি হজম করা তুলনামুলকভাবে সহজ। আঙুর ও বেরি জাতীয় ফলে শর্করার পরিমাণ তুলনামূলক ভাবে কম থাকে। এ কারণে এই ফলগুলি হজম করা সহজ।

হোল গ্রেন
: বিশেষজ্ঞরা বলছেন,হোল গ্রেন খেলে দ্রুত পেট ভর্তি হওয়ার অনুভূতি তৈরি হয়। ফলে অতিরিক্ত খাবার খেয়ে ফেলার সমস্যা কমে। পাশাপাশি হোল গ্রেনে থাকে ভিটামিন ই, জিঙ্ক ও নিয়াসিনের মতো উপাদান, যা ক্যান্সার ও হৃৎপিণ্ডের সমস্যার আশঙ্কা কমাতে সহায়তা করে।

শাক ও কাঁচা সবজি
: সবুজ পালং শাক কিংবা বিটের শাকে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার থাকে। এসব শাকে ভিটামিন সি, ভিটামিন কে এবং ভিটামিন এ পাওয়া যায়। বিভিন্ন ফাইবারসমৃদ্ধ সবজি খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা কমে।

প্রো-বায়োটিক সমৃদ্ধ খাবার
: প্রো-বায়োটিক সমৃদ্ধ খাবারে উপকারী ব্যাক্টেরিয়া থাকে যা হজমে সহায়তা করে। প্রো-বায়োটিক সমৃদ্ধ খাবার খেলে এই ধরনের উপকারী ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। ফলে পেট ভালো থাকে। দই এই ধরনের প্রো-বায়োটিক সমৃদ্ধ খাবার।

পর্যাপ্ত পানি: পানিশূন্যতা বা ‘ডিহাইড্রেশন’ পেটের সমস্যার অন্যতম মূল কারণ। পানি কম খেলে তাই বেড়ে যেতে পারে গ্যাস ও পেট ফাঁপার সমস্যা। তাই এই ধরনের সমস্যা কমাতে পর্যাপ্ত পানি পান করা উচিত।