অতিরিক্ত ওজন থাকলে বা ওবেসিটি থাকলে খাওয়া-দাওয়ায় এই ভুলগুলো করবেন না। ওজনের ঊর্ধ্বমুখী পারদ দেখে সচেতন হন। এক দিন বাইরে খেলেই যে আপনার ওবেসিটি হবে, তা নয়। কারণ মাঝে-মধ্যে বাইরে খাওয়া ওজনে আকাশ-পাতাল তফাত আনে না। তবে ওজন বাড়তে থাকলে তা মোটেই সুলক্ষণ নয়। রোজকার খাদ্যাভ্যাস এখানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই দৈনন্দিন ক্যালরি ইনটেক কমানো দরকার।

দৈনন্দিন ৮০০-১০০০ কিলোক্যালরি এবং প্রয়োজনীয় সব পুষ্টি যাতে পাওয়া যায়, এমন ডায়েট ফলো করতে হবে। নির্দিষ্ট ব্যবধানে বারবার অল্প পরিমাণে খাওয়ার অভ্যাস করুন।

প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেটের প্রায় দ্বিগুণ এনার্জি সরবরাহ করে ফ্যাট। তাই ফ্যাটের ইনটেকও কমাতে হবে। রিফাইন্ড সুগার এবং অ্যালকোহল বর্জন করুন। কারণ এগুলো মূলত এম্পটি ক্যালরি।

ফাইবার-রিচ ফল, সবজি খান নিয়মিত। এগুলো খিদে না মেটালেও জরুরি ভিটামিন এবং মিনারেলের চাহিদা পূরণে উপযোগী। অল্প সময়ে অনেকটা ওজন কমিয়ে দেবে, এমন কোনো ডায়েট ভুলেও করতে যাবেন না। এতে ফ্রাস্ট্রেশন বাড়া ছাড়া আর কোনো উপকার পাওয়া যায় না। ঘন ঘন উপোস করে বা অনেকক্ষণ খালি পেটে থাকার পর একবারে অনেকটা খাবার খেলে ওজন আরও বাড়বে।

নুনের পরিমাণ কমান যথাসম্ভব। রান্নায় আদা, রসুন, পেঁয়াজ ব্যবহার করুন হাত খুলে। অন্তত ৮ গ্লাস পানি খান প্রতিদিন। নিয়ম করে শরীরচর্চাও করতে হবে। মন ভালো রাখতে হালকা গান শুনুন। ইমোশন, স্ট্রেস থেকে সহজে মুক্তি মিলবে।