পটুয়াখালীর বাউফলে করোনা আক্রান্ত হয়েছে কিনা তা পরীক্ষায় মেয়াদোত্তীর্ণ র‌্যাপিড টেস্ট ডিভাইস ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের বিরুদ্ধে।

সোমবার বেলা ১২টা পর্যন্ত এ ডিভাইস দিয়ে ১৪ জনের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়। কোভিড পরীক্ষা করতে এসে ফরহাদ হোসেন নামের এক রোগীর বিষয়টি নজরে আসে। ডিভাইসের গায়ে উৎপাদনের তারিখ লেখা রয়েছে ৩০.০৬.২০২১ ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ লেখা রয়েছে ২৯.০৬.২২।  

অর্থাৎ পাঁচ দিন আগেই ডিভাইসটির মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে। এই পাঁচ দিন মেয়াদোত্তীর্ণ ডিভাইস দিয়ে  টেস্ট করা হয়। ডিভাইসটির লট নম্বর হচ্ছে ৪১এডিজি৫৭৩এ। ডিভাইসটি জার্মানির তৈরি। এই ঘটনার পর বর্তমানে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোভিড-১৯ টেস্ট বন্ধ রয়েছে। 

ফরহাদ জানান, ডিভাইসটি তার নজরে আসলে তিনি সেটি মেয়াদ উত্তীর্ণ দেখতে পেয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন। পরে চিকিৎসকরা এসে তাকে শান্ত করেন।

এ বিষয়ে বাউফল উপজেলা  স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনার কর্মকর্তা  ডা. প্রশান্ত কুমার সাহা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। তবে তিনি নার্সদের অসতর্কতায় এমনটা হতে পারে বলে দাবি করেন।