অন্য বাদামের চেয়ে কোনও অংশে কম গুণ নেই আখরোটের। এতে ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে শরীরের জন্য উপকারী প্রোটিন, ম্যাগনেশিয়ামের মতো আরও নানা খনিজ । আখরোটে শরীরের জন্য উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও পাওয়া যায়।

চিকিৎসকরা বলেন, ক্যানসার থেকে হৃদরোগ, সবই নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে আখরোট। মস্তিষ্ক সচল রাখতেও সাহায্য করে। ‘জার্নাল অব নিউট্রিশন’-এ প্রকাশিত এক গবেষণাপত্রে জানানো হয়েছে, নিয়মিত আখরোট খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। এর ফলে হৃৎপিণ্ড এবং মস্তিষ্ক সবই যত্নে থাকে।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অতিরিক্ত আখরোট খাওয়া মোটেও ভালো নয়। কারণ এই বাদামের প্রভাব বিভিন্ন ভাবে পড়তে পারে শরীরের উপর। ‌এ কারণে অন্য সব বাদামের মতো আখরোটও খেতে হবে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায়।

 অতিরিক্ত আখরোট খেলে যেসব ক্ষতি হতে পারে-

১. বেশি আখরোট খেলে প্রথমত পেট ফেঁপে যাওয়ার সমস্যা হতে পারে। দেখতে ছোট হলেও খুব অল্পেই পেট ভরিয়ে দিতে পারে আখরোট।

২. নিয়মিত মুঠো মুঠো আখরোট খেলে পেট খারাপ, হজমের গোলমাল হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৩. ফ্যাটযুক্ত অন্য সব খাবার বন্ধ করে দিলে আলাদা। না হলে বেশি আখরোট খেলে নানা ধরনের তেল যায় শরীরে। এর ফলে খুব দ্রুত ওজন বাড়তে পারে।