মৌসুমি ফলের ভিড়ে বাজারে এখন পাওয়া যাচ্ছে লটকনও। এটি পুষ্টিকর একটি ফল। এতে ভিটামিন ও খাদ্যশক্তিসহ নানারকম খনিজ উপাদান রয়েছে। এক সময় এই ফলটি এশিয়ার বিভিন্ন দেশে বিশেষ করে ভারত, মালয়েশিয়ায় বেশি পাওয়া যেত। এখন বাংলাদেশেও এই ফলটির ব্যাপক চাষ হয়।

টক মিষ্টি স্বাদের এই ফলটি স্বাস্থ্যের জন্য দারুণ উপকারী। লটকন খেলে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়-

১. লটকনে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এটি শরীরের যেকোন ধরণের সংক্রমণ যেমন- ঠান্ডা-কাশি সারাতে ভূমিকা রাখে।বিশেষজ্ঞরা বলছেন,  দিনে দুতিনটি লটকন খেলে শরীরের ভিটামিন সি’র চাহিদা পূরণ হয়। ভিটামিন সি দাঁতের স্বাস্থ্য সুরক্ষাও করে।  

২ .শরীরে আয়রনের ঘাটতি হলে রক্তশূন্যতা দেখা দেয। লটকনে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকায় এটি রক্তশূন্যতা রোধ করে।

৩. লটকন রক্তের জন্যও উপকারী । কারণ এই ফলে পর্যাপ্ত পরিমাণে পটাশিয়াম রয়েছে। কলার মতো এ ফলটিও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে।

৪. লটকনে পর্যাপ্ত পরিমাণে ক্যালসিয়াম পাওয়া যায়। এ কারণে নিয়মিত লটকন ও ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ খাবার খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি কমে।

৫. লটকন খেলে হজমশক্তি ভাল হয়। এতে থাকা ফাইবার হজমক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এছাড়া এটি কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায়।

৬. লটকন গা গোলানো ও বমি বমিভাব দূর করতে পারে। সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড

বিষয় : লটকন লটকনের পুষ্টিগুণ

মন্তব্য করুন