বগুড়ার ধুনটে সুলতান প্রাং (৩৬) নামে এক সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শৈলমারী মধ্যপাড়ায় একটি মাদ্রাসার কাছে এ ঘটনা ঘটে।

সুলতান উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামের মৃত আলতাব আলীর ছেলে। 

সুলতানকে কুপিয়ে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে পুলিশ রাত সাড়ে ৯টার দিকে সুলতানের লাশ উদ্ধার করে।

থানা সুত্রে জানা যায়, সুলতানের রিরুদ্ধে ধুনট থানায় হত্যা, মাদকসহ একাধিক মামলা রয়েছে। সুলতান ২০২০ সালে ২ ফেব্রুয়ারি শৈলমারী গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে রঞ্জু মিয়াকে কুপিয়ে হত্যা করে। রঞ্জু হত্যা মামলার অন্যতম আসামি সুলতান। হত্যা মামলায় দীর্ঘদিন কারাভোগের পর জামিনে বেরিয়ে এসে সুলাতান আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। এলাকায় প্রকাশ্যে মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়ে সে।

এ বিষয়ে ধুনট থানার ওসি রাজ্জাকুল ইসলাম জানান, হত্যাকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে সরেজমিনে ঘঠনাস্থল পরিদর্শন করে সুলতানের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে।