মিষ্টি স্বাদের খেজুর নানা পুষ্টি গুণে সমৃদ্ধ। স্থানভেদে একেক এলাকার খেজুর একেক রঙের হয়, কিন্তু সব রঙের খেজুরেরই কোনো না কোনো পুষ্টিগুণ রয়েছে। খেজুর সব বয়সীদের জন্য উপকারী।

নারীরা শরীরের ঠিক মতো যত্ন নেন না। সেক্ষেত্রে তাদের জন্য দারুণ উপকারী হতে পারে খেজুর। খেজুরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। ফ্ল্যাভানয়েডসও ভরপুর থাকে এই ফলে। এছাড়াও শরীরের জন্য উপকারী ভিটামিন বি৬ থেকে শুরু করে ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম পাওয়া যায় খেজুরে।

দিনে দুটি করে খেজুর খাওয়ার উপকারিতা-

১. খেজুরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফলিক অ্যাসিড থাকে।  নারীদের শরীরে এই ফলিক অ্যাসিডের ঘাটতি থাকলে তা গুরুতর প্রভাব ফেলে। বিশেষ করে গর্ভাবস্থায় এই ঘাটতি বেশি দেখা দেয়।  এই সময়ে নারীদের দুটি করে খেজুর খাওয়া উচিত।

২. খেজুরে ভালো পরিমাণে কপার, সেলেনিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম থাকে। এই উপাদানগুলো হাড়ের সমস্যা দূর করে দিতে পারে। এছাড়া অস্টিওপোরোসিস দূর করার ক্ষেত্রেও খুবই প্রয়োজন খেজুর।

৩.খেজুরে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার থাকে।  ফাইবার বিপাকক্রিয়া ঠিক রাখে। এমনকী পেট ভরা থাকে দীর্ঘক্ষণ। এ কারণে খেজুর ওজন কমাতেও ভূমিকা রাখে।

৪. হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে খেজুর খুবই উপকারী। খেজুরে এমন কিছু অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা হৃদরোগজনিত জটিলতা দূর করতে ভূমিকা রাখে।  

৫.  নিয়মিত খেজুর খেলে হজমশক্তি বাড়ে। সেই সঙ্গে ত্বকও থাকে ঝলমলে। খেজুর চুলের জন্যও বেশ উপকারী।