অনেকের ধারণা, কোলেস্টেলর মানেই খারাপ। কিন্তু শরীরে দুই ধরনের কোলেস্টেলর থাকে। একটা ভালো কোলেস্টেরল বা এইচডিএল, আরেকটা খারাপ কোলেস্টেরল বা এলডিএল ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরে ভালো কোলেস্টেরল বা এইচডিএল বাড়লে অনেকটা লাভ হয়। এই কোলেস্টেরল হৃদরোগের আশঙ্কাও কমায়।

তবে খারাপ কোলেস্টেরল বাড়লে হৃদরোগ থেকে শুরু করে স্ট্রোকের ঝুঁকিও বাড়ায়।

শরীরে এইচডিএল বা ভালো কোলেস্টেরল বাড়াতে গেলে কিছু খাবার খাওয়া প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে কয়েকটি সবজি বেশ উপকারী। যেমন-

বেগুন : বেগুনে অ্যান্থোসায়ানিন নামক একটি যৌগ থাকে। সেই যৌগটি এইচডিএল কোলেস্টেরল বাড়িয়ে দিতে পারে।

​বিট : বিট দারুণ এক সবজি। এই সবজিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। বিটে রয়েছে ভালো পরিমাণে বিটা ক্যারোটিনও পাওয়া যায়। এই বিটা ক্যারোটিন ভালো কোলেস্টের বা এইচডিএল বাড়ায়।

মটরশুঁটি : মটরশুঁটিতে ভালো পরিমাণে ভিটামিন বি৩ বা নিয়াসিন পাওয়া যায়। এই ভিটামিন বাড়াতে পারে এইচডিএল।

টমেটো: টমেটোয় পর্যাপ্ত পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন রয়েছে।  এতে আছে ভিটামিন বি৩ থ্রি-ও। এই ভিটামিন এইচডিএল কোলেস্টেরল বাড়াতে ভূমিকা রাখে। তবে খুব বেশি টমেটো খাওয়া ঠিক নয়। এই খাবারটিও খেতে হবে নিয়ম করে।

পালংশাক: পালং সবজি নয়। তবে শাকের মধ্যে পালং খুব ভালো। এই শাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে খনিজ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এই শাক খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের ভারসাম্য বজায় থাকে।