পূজার দিনগুলোতে টেবিলে বাহারি সব খাবার থাকা চাই। নইলে কি আর উৎসব জমে? ষষ্ঠী থেকে নবমীর দিনগুলোতে পাতে কোন কোন খাবার রাখতে পারেন তা এক ঝলকে দেখে নিন। রেসিপি দিয়েছেন আলিফ রিফাত।ছবি তুলেছেন আমিনুর রহমান আজম
পাঁচমিশালি সবজির শুক্তো
উপকরণ :মিষ্টি আলু ১টি, আলু ১টি, সজনে ডাঁটা ২-৩টি, পেঁপে ১/২টি, বেগুন ২টি, কাঁচকলা ২টি, করলা ২টি, ভাজা ডালের বড়ি ১০টি, ময়দা ১/২ চামচ, দুধ ১০০ মিলি, আদা বাটা ৩৫ গ্রাম, শর্ষে বাটা ২৫ গ্রাম, নারকেল কোরানো ১৫ গ্রাম, তেজপাতা ৩-৪টি, পাঁচফোড়ন ১/২ চা চামচ, রাঁধুনি গুঁড়া ১/২ চা চামচ, ঘি বড় ১ চামচ, শুকনা মরিচ ২-৩টি, দুধ ১০০ গ্রাম, সবজির স্টক ১/২ কাপ, চিনি ১ চা চামচ, লবণ স্বাদমতো
প্রস্তুত প্রণালি :সবজি সব লম্বাটে করে কেটে নিতে হবে। সজনে ডাঁটা ভাপ দিয়ে নিতে হবে। বাকি সব সবজি ভেজে নিতে হবে। কড়াইয়ে তেল গরম করে শুকনা মরিচ, তেজপাতা ও পাঁচফোড়ন দিতে হবে। এরপর আদা ও শর্ষে বাটা দিয়ে কষাতে হবে। মসলার কাঁচা গন্ধ দূর হলে সেদ্ধ করা সবজি, ভাজা ডালের বড়ি ও ভাজা সবজি দিয়ে কষাতে হবে। এবার নারকেল কোরা ও সবজির স্টক দিয়ে ঢেকে দিতে হবে মৃদু আঁচে। সবজি মজে এলে দুধে ময়দা গুলিয়ে তা ঢেলে দিয়ে আরও মিনিট পাঁচেক রান্না করতে হবে। নামানোর আগে রাঁধুনি গুঁড়া, চিনি ও ঘি দিয়ে গরম গরম ভাতে পরিবেশন করতে হবে।

সাগুদানার লুচি
উপকরণ :সাগুদানা ৩ কাপ, ময়দা ১ কাপ, মাঝারি আকারের আলু ১টি, শুকনা মরিচের গুঁড়া ১/২ চা চামচ, ধনে পাতা কুচি ১ চা চামচ, কালিজিরা ১/২ চা চামচ, আজোয়াইন ১/৩ চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, ভাজার জন্য তেল পরিমাণমতো।
প্রস্তুত প্রণালি :সাগুদানা ভেজে গুঁড়া করে নিতে হবে। আলু সেদ্ধ করতে হবে। এবার সব উপকরণ কুসুম গরম পানি দিয়ে একটু নরম করে মাখাতে হবে। সেট হওয়ার জন্য ৩০ মিনিট ঢেকে রেখে দিতে হবে। এবার ছোট ছোট করে কেটে ডুবো তেলে ভেজে নিতে হবে। মনে রাখতে হবে সাগুদানার লুচির কোনা তেমন মসৃণ হয় না। তাই কেউ মসৃণ লুচি চাইলে কাই বেলে ধারালো বাটি দিয়ে কেটে গোল গোল করে ভেজে নিতে পারেন।

আলু ঝুরি ভাজা
উপকরণ :আলু ৪০০ গ্রাম, বাদাম ১০০ গ্রাম, কারিপাতা ২ ডাঁটি।
মশলা :কালো গোলমরিচ ১/২ চা চামচ, বিট লবণ ১/২ চা চামচ, শুকনা মরিচের গুঁড়া ১/২ চা চামচ, চাট মসলা ১/২ চা চামচ। সব একসঙ্গে হামানদিস্তায় দিয়ে মিহি করে নিতে হবে।
প্রস্তুত প্রণালি :আলু মিহিকুচি করে নিন। ধুয়ে পানি ঝরিয়ে মোটা তোয়ালের ওপর রেখে পানি শুকিয়ে নিন। কড়াইয়ে ৫০০ গ্রাম পরিমাণ তেল দিয়ে গরম করুন। এরপর চীনাবাদাম আর কারিপাতা ভেজে নিন। আলু সোনালি রং করে ভেজে নিন। আলু ভাজা হয়ে গেলে বাদাম, কারিপাতা ও তৈরি করা মসলা মাখিয়ে পরিবেশন করুন।
আমড়ার চাটনি
উপকরণ :আমড়া ৮টি, চিনি বা গুড় ১ কাপ, চীনাবাদাম গুঁড়া ২/৩ টেবিল চামচ, তেজপাতা ২/৩টি, শুকনা মরিচ ২/৩টি, কালো সরিষা ১/২ চা চামচ, পাঁচফোড়নের গুঁড়া ১ চা চামচ, শর্ষের তেল ১/২ কাপ, লবণ পরিমাণমতো।
প্রস্তুত প্রণালি :প্রথমে সব আমড়া ফালি করে সেদ্ধ করে নিতে হবে কিংবা সেদ্ধ করে হাত দিয়ে চেপে মাখিয়ে নিতে হবে। কড়াইয়ে তেল দিয়ে তেজপাতা, শুকনো মরিচ, শর্ষের ফোড়ন দিতে হবে। সুগন্ধ বের হলে সেদ্ধ আমড়া, লবণ দিয়ে কষাতে হবে। আমড়া কষানো হলে চিনি বা গুড়, আগে থেকে ভেজে রাখা বাদামের গুঁড়া আর ১/২ কাপ পানি দিয়ে জ্বাল দিতে হবে। থকথকে হয়ে এলে পাঁচফোড়ন গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

বিষয় : নবমীর রান্না রেসিপি

মন্তব্য করুন